Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৪৭
ঝুঁকিপূর্ণ হলেও সত্যের পথে থাকতে হবে
মাওলানা মুহম্মাদ শাহাবুদ্দিন

ইসলাম সত্য সুন্দর ও কল্যাণের পথে চলার জন্য মুমিনদের তাগিদ দিয়েছে। সত্যান্বেষণ নিজের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হলেও সেদিকে এগুনোর তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

  রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তোমরা সত্য সন্ধানে প্রবৃত্ত হও যদিও দেখ যে, তাতে ক্ষতি রয়েছে; কেননা তাতেই আছে প্রকৃত মুক্তি। (ইবনে আবিদ দুনিয়া)। আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা.) হতে বর্ণিত হাদিসে নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন— ‘সত্য পুণ্যের দিকে পথ দেখায় এবং পুণ্য জান্নাত পর্যন্ত পৌঁছে দেয়, কোনো ব্যক্তি সত্যব্রত গ্রহণ করে চললে শেষ পর্যন্ত আল্লাহর দরবারে সত্যবাদী রূপে তালিকাভুক্ত হয়। আর মিথ্যা পাপাচারের পথ দেখায় এবং পাপাচার জাহান্নাম পর্যন্ত পৌঁছে দেয়। কোনো ব্যক্তি যখন মিথ্যায় অভ্যস্ত হয়ে যায়, তখন আল্লাহর কাছে সে মিথ্যাবাদী রূপে তালিকাভুক্ত হয়। (বুখারি-মুসলিম)। ইসলাম সত্য সম্পর্কে কোনো সংশয়কে প্রশ্রয় দিতে নারাজ। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আরও বলেছেন— ‘যা তোমাকে সন্দিহান করে তা বর্জন কর, যা তোমার কাছে সন্দেহমুক্ত তা গ্রহণ কর। কেননা সত্য নিশ্চিন্ততা ও প্রশান্তি আনে এবং মিথ্যা দ্বিধা ও সন্দেহের কারণ। ’ (তিরমিযি)।

রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ছিলেন সততার প্রতীক। আবু সুফিয়ান সাখর ইবনে হারব হতে হিরাক্লিয়াসের দরবারে ঘটনা প্রসঙ্গে দীর্ঘ হাদিসে বর্ণিত হয়েছে যে, হিরাক্লিয়াস বলল, নবী তোমাদের কী কী আদেশ দেন? আবু সুফিয়ান বলেন— আমি বললাম, তিনি বলেন, ‘এক আল্লাহর ইবাদত কর, তার সঙ্গে কোনো শরিক কর না এবং তোমাদের পূর্ব-পুরুষ যা বলত ও করত তা (পৌত্তলিকতা ও জাহিলিয়াত) বর্জন কর। তিনি আমাদের আদেশ দেন সালাতের, সত্যের, চারিত্রিক পবিত্রতার ও আত্মীয়তা সম্বন্ধ রক্ষার। (বুখারি-মুসলিম)। জীবনের সব ক্ষেত্রে সততা অবলম্বন করার যে শিক্ষা ইসলাম দিয়েছে তা। ব্যবসা-বাণিজ্য, লেনদেন, ক্রয়-বিক্রয় সব ক্ষেত্রে অবশ্য পালনীয় বিষয়। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘ক্রেতা-বিক্রেতা বিচ্ছিন্ন না হওয়া পর্যন্ত তাদের (বেচাকেনা করা না করার) এখতিয়ার থাকে যদি তারা সত্য বলে ও (পণ্যের ভালো-মন্দ) তবে তাদের বেচাকেনায় বরকত দেওয়া হবে। আর যদি (খুঁত দোষ) গোপন করে ও মিথ্যা বলে, তবে তাদের বেচাকেনার বরকত নষ্ট করে দেওয়া হবে।   (বুখারি-মুসলিম)।

পবিত্র কোরআন ও হাদিসের আলোকে আমরা যদি সর্বক্ষেত্রে সততা অবলম্বন করি তাহলে সমাজ ও দেশে বিদ্যমান অনেক সমস্যার সমাধান নিশ্চিত হবে। ঘুষ-দুর্নীতিসহ সব অন্যায় সততার অভাবে সংঘটিত হয়।

লেখক : ইসলামী গবেষক।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow