Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা আপলোড : ২ মার্চ, ২০১৭ ০০:১৭
ইসলামের দৃষ্টিতে প্রতিবেশীর হক
মাওলানা মুহাম্মদ আশরাফ আলী

সব কিছু বদলানো গেলেও প্রতিবেশী বদল করা যায় না। এ বাস্তবতাকে মনে রেখে পাড়া-প্রতিবেশীদের সঙ্গে সদাচরণের যে বাধ্যবাধকতা ইসলামে আরোপ করা হয়েছে তা দৃষ্টান্তস্থানীয়।

সমাজে বাস করতে হলে এক মানুষের সঙ্গে অপর মানুষের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক জরুরি। ইসলামে এ জন্য প্রতিবেশীদের সঙ্গে সু-সম্পর্ককে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

রসুল (সা.)-এর কাছে এসে এক ব্যক্তি বলল— কি আমল অনুসরণ করলে বেহেশতে যাওয়া যাবে তা যেন তিনি বাতলে দেন। রসুল (সা.) বললেন পরোপকারী হও। ওই ব্যক্তি জিজ্ঞেস করলেন, কীভাবে বুঝব আমি পরোপকারী? রসুল (সা.) বললেন, তোমার প্রতিবেশী যদি বলে তুমি পরোপকারী, তবে তুমি পরোপকারী। আর যদি সে বলে তুমি অন্যায়কারী তবে তুমি অন্যায়কারী।

প্রতিবেশী মুসলিম হোক আর অমুসলিম হোক সদাচরণের ক্ষেত্রে কোনো পার্থক্য নির্ণয় করা হয়নি ইসলামী বিধানে। এমনকি বিধর্মী প্রতিবেশীর অসঙ্গত আচরণ সত্ত্বেও সহনশীল মনোভাব দেখিয়েছেন সাহাবিরা। এ মনোভাব প্রকারান্তরে বিধর্মীদের কাছেও ইসলামের শ্রেষ্ঠত্ব তুলে ধরেছে।

তারা এই মহান ধর্মে আশ্রয় নেওয়াকে করণীয় কর্তব্য বলে মনে করেছেন। দৃষ্টান্ত হিসেবে উল্লেখ করা যায়, বিধর্মী প্রতিবেশীর সঙ্গে হজরত সাহল বিন আবদুল্লাহ আততাসতরী (র.)-এর আচরণের কাহিনীটি। সাহল বিন আবদুল্লাহ আততাসতরী (র.)-এর একজন অগ্নিপূজক প্রতিবেশী ছিল। নিত্যদিন তার ঘর থেকে তার অগোচরে বেশ অনেকটা ময়লা-আবর্জনা হজরত সাহল (র.)-এর গৃহে এসে জমত। অথচ তিনি সে জন্য তাকে কোনো দোষারোপ করতেন না। তিনি দিনে সেই ময়লা জমিয়ে ঢেকে রাখতেন এবং রাতে বাইরে ফেলে দিতেন। হজরত সাহল মারা যাওয়ার আগে একদিন সেই প্রতিবেশীকে ডেকে এনে জমাকৃত ময়লা দেখিয়ে বললেন : ‘আমার মৃত্যুর সময় ঘনিয়ে না এলে আমি এটা আপনার গোচরে আনতাম না। আমি ভয় পাচ্ছি, আমি মারা যাওয়ার পর আমার পরিবারের আর কেউ আমার মতো সহিষ্ণুতা প্রদর্শন করবে না। তাই ব্যাপারটা আপনার গোচরে নিয়ে এলাম, আপনি যা ভালো বোঝেন করুন। ’ তখন প্রতিবেশী অগ্নিপূজক বিস্ময়াভিভূত হয়ে পড়ল। সে বলল, ‘আপনি এত দীর্ঘ সময় ধরে এ তিক্তকর বিষয়টি সয়ে আসছেন, অথচ রা শব্দটিও করেননি। আর আমি কিনা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ না করে এখনো অবিশ্বাসের মধ্যে ডুবে আছি। ’ এই বলে অগ্নিপূজক ব্যক্তিটি হজরত সাহলের হাতে ইসলাম কবুল করে। অতঃপর হজরত সাহল (র.) ইন্তেকাল করলেন।   আল্লাহ আমাদের প্রতিবেশীদের প্রতি সদাচরণের তাওফিক দান করুন।

 লেখক : ইসলামী গবেষক।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow