Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৬

বাংলায় আদালতের রায়

মাতৃভাষার গৌরব বাড়াবে

বাংলায় আদালতের রায়

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আদালতের রায় বাংলায় লেখার জন্য বিচারকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। বলেছেন কেউ যদি রায় ইংরেজিতে লিখতে চান লিখতে পারবেন, তবে তা বাংলায়ও প্রকাশ করতে হবে। এতে যিনি রায় পাবেন তিনি পড়ে জানতে পারবেন কী রায় পেলেন। না হলে অন্যের ওপর নির্ভর করে থাকতে হয়। এতে হয়রানির শিকার হতে হয় ভুক্তভোগীকে। বৃহস্পতিবার বিকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে অমর একুশে শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদ্্যাপন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর এ আহ্বান সময়োচিত ও প্রশংসার দাবিদার। কারণ যারা আদালতে আছেন, তারা যদি মাতৃভাষায় লেখার অভ্যাস করেন, তবে স্বল্পশিক্ষিত মানুষের সুবিধা হবে। তারা রায় পড়ে বুঝতে পারবেন রায়ে বিচারক কী লিখেছেন, কী বলতে চেয়েছেন। অন্যথায় আইনজীবীর ওপর নির্ভরশীল থাকতে হবে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আজকে বিশ্ব গ্লোবাল ভিলেজ। পৃথিবীর সব দেশের মানুষ নিজেদের ভাষা শিক্ষার সঙ্গে সঙ্গে একটা দ্বিতীয় ভাষা শিক্ষা নেয়। দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে অন্য ভাষা শিক্ষার সুযোগ আমাদের দেশেও রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আদালতের রায় বাংলা ভাষায় লেখা অথবা রায়ের বাংলা রূপান্তরের ওপর যে গুরুত্বারোপ করেছেন তা খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। মাতৃভাষা তথা রাষ্ট্রভাষার মর্যাদা সমুন্নত রাখার স্বার্থেই বাংলাকে আদালতের ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠার গুরুত্ব অপরিসীম। প্রযুক্তিগত সীমাবদ্ধতা এবং দীর্ঘদিনের অভ্যাসের কারণে বিচারকদের পক্ষে বাংলায় রায় লেখা সম্ভব না হলে তা দ্রুত অনুবাদের ব্যবস্থা থাকলে এ ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা হওয়ার কথা নয়। আমাদের বিশ্বাস, প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান বিচারের রায় বাংলায় লেখার ক্ষেত্রে বিচারকদের উদ্বুদ্ধ করলে তা বাংলা ভাষার গৌরব বাড়াবে। এ ক্ষেত্রে বিচার বিভাগকে সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা

 দেওয়া হবে-এমনটিও প্রত্যাশিত।


আপনার মন্তব্য