Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৯ জুন, ২০১৬ ২৩:৫৭
জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা
বাংলা প্রথমপত্র

ফারুক আহম্মদ, সহকারী শিক্ষক

আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল  

অনুচ্ছেদ লেখার নিয়ম

অনুচ্ছেদের সংজ্ঞা:

১।   অনুচ্ছেদ শব্দটি পারিভাষিক শব্দ। ইংরেজি Paragraph এর সমার্থক শব্দ হিসাবে ‘অনুচ্ছেদ’ শব্দটি ব্যবহূত হয়। কখনো কখনো একে সংক্ষেপে ‘প্যারা’ বলা হয়। কোন বিষয়বস্তু সম্পর্কে সুচিন্তিতভাবে সুন্দর ভাষায় বক্তব্য প্রকাশের বিশেষ রীতিকে অনুচ্ছেদ বলে।

অনুচ্ছেদের প্রয়োজনীয়তা :

আধুনিক সভ্যতার যান্ত্রিকতার এই যুগে মানুষের কর্মব্যস্ততা বহুগুণে বেড়ে গেছে। তাই স্বল্প সময়ে মানুষ অনেক কিছু পেতে চায়। বেশি পড়া ও বেশি শোনার সময় ও আগ্রহ কোনটাই মানুষের নেই। পাঠকের মনোভাব হলো স্বল্প সময়ে অনেক কিছু পাওয়া। আর এই পাওয়ার অন্যতম মাধ্যম হলো অনুচ্ছেদ। অনুচ্ছেদ লেখকের চিন্তাশক্তির উৎকর্ষ বাড়িয়ে দেয়।

তাছাড়া স্কুল-কলেজে বা অন্য যে কোন স্থানে বক্তব্য দিতে প্রয়োজনীয় তথ্য অনুচ্ছেদ থেকে সংগ্রহ করা যায়।

অনুচ্ছেদ রচনার বিষয়:

অনুচ্ছেদ রচনার কোন সুনির্দিষ্ট বিষয় নে্ই। বিভিন্ন বিষয়ের উপর অনুচ্ছেদ রচিত হতে পারে। তবে অনুচ্ছেদ রচনায় যেসব বিষয় প্রাধান্য পায় তা হলো-

ক. সাহিত্য শিল্প-সংস্কৃতি খ. ইতিহাস ও ঐতিহ্য

গ. সমকালীন ঘটনা ও পরিবেশ

ঘ. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ঙ. বিখ্যাত ব্যক্তিদের জীবনী

অনুচ্ছেদ লেখার নিয়ম :

অনুচ্ছেদ লেখার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের নিচের বিষয়গুলোর প্রতি বিশেষভাবে লক্ষ রাখতে হবে-

অনুচ্ছেদের আকার কতটুকু হবে তার কোন ধরা-বাঁধা নিয়ম নেই। তবে অনুচ্ছেদ অযথা দীর্ঘ করা যাবে না। অনুচ্ছেদ রচিত হবে একটি প্যারায়। কোনমতেই একাধিক প্যারা থাকতে পারবে না। অনুচ্ছেদের নাম বা শিরোনাম লিখতে হবে। অনুচ্ছেদ রচনার সময় মূল ভাব বা বিষয় ভালোভাবে চিস্তা করতে হবে।

 

একটি অনুচ্ছেদে একটি ভাবের প্রকাশ ঘটবে।

 অনুচ্ছেদ রচনার শুরুর সঙ্গে সমাপ্তি বক্তব্যের মিল থাকতে হবে।

অনুচ্ছেদের বক্তব্য স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে হবে। অর্থাৎ অল্প কথায় সম্পূর্ণ ভাবের প্রকাশ ঘটবে।

অনুচ্ছেদে বাক্যের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক বজায় রাখতে হবে।

 অনুচ্ছেদ যথার্থ তথ্যনির্ভর হবে এবং তথ্যগুলো সঠিক হতে হবে।

 একই কথার বারবার পুনরাবৃত্তি করা যাবে না।

 ভাষা সহজ-সরল হবে। অস্পষ্ট এবং জটিল ভাষা পরিহার করাই শ্রেয়।

 বাক্যের মধ্যে প্রাসঙ্গিক ছোট উদ্ধৃতি ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে দীর্ঘ উদ্ধৃতি ব্যবহার না করাই শ্রেয়। অনুচ্ছেদে কবিতার স্তবক ব্যবহার করা যাবে না।

 নমুনা অনুচ্ছেদ : বাংলা নববর্ষ

সারা বছরের সমস্ত দুঃখ ও সমস্ত গ্লানি ঘুচিয়ে নতুন করে প্রতিবছর ফিরে আসে ১ বৈশাখ। নতুন পসরা সাজিয়ে আগমন ঘটে নতুন বছরের। এ দিনটিই বাঙালিদের কাছে বাংলা নববর্ষ নামে পরিচিতি। নববর্ষ সকল দেশের, সকল জাতির আনন্দ-উৎসবের দিন। আমরা সুখ-শান্তি-সমৃদ্ধি ও কল্যাণের প্রত্যাশা নিয়েই মহা ধুম-ধামের সঙ্গে নববর্ষ উদ্যাপন করে থাকি। বাঙালি জাতিসত্তা বিনির্মাণে এবং স্বাধীনতা অর্জনে রয়েছে নববর্ষের ভূমিকা। অধিকাংশ প্লিত ও ঐতিহাসিকগণরা মনে করেন, মুঘল সম্রাট আকবার ১৫৫৬ সাল থেকে বাংলা সন চালু করেন।   (চলবে)

এই পাতার আরো খবর
up-arrow