Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৫ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৫১
সুলতানে তোলপাড়
শোবিজ ডেস্ক
সুলতানে তোলপাড়

এবার সুলতান হয়েই সবার মন কেড়েছেন। ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘সুলতান’ ছবির সফলতা নিয়ে যেন হাওয়ায় ভাসছেন সালমান খান। আমির খানের পিকে ছবির রেকর্ড ভাঙতে যাচ্ছে সুলতান।

প্রথমে ছিলেন দাবাং খান। এরপর গেল বছর বজরঙ্গি ভাইজান হিসেবে ভক্তমহলে পরিচিত ছিলেন বলিউডের মোস্ট এলিজিবল ব্যাচেলর সালমান খান। বিশেষ উপলক্ষগুলোকে কেন্দ্র করে বলিউডপাড়ায় খান পরিবারের দাপট অনেকটাই পুরনো বিষয়। এমনকি উপলক্ষ ছাড়াও সারা বছরই যেন বলিউড ইন্ডাস্ট্রি থাকে খান পরিবারের দখলে।

চলচ্চিত্রের বাইরেও কোনো না কোনো বিষয় নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলে খানদের নিয়েই। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। গেল ঈদে মুক্তি পেয়েছে সুপারস্টার সালমান খান অভিনীত ছবি ‘সুলতান’। কেবল প্রশংসা নয়, মুক্তির পর পরই ব্যবসায়িকভাবে সুলতানের সফলতা আকাশছোঁয়া। শুরুর দিন থেকেই ব্যবসায়িকভাবে বড়সড় সাফল্যের এমন ইতিহাস ভারতীয় সিনেমায় এর আগে লেখা হয়নি। মুক্তির প্রথম দিনেই প্রায় চল্লিশ কোটি রুপি আয় করেছে। এখন তো সেটা দুইশ কোটি পার হয়ে গেছে। এটাকে শুধু হিট বললে কম বলা হবে, ছবিটি মুক্তির তিন দিনের মধ্যে একশ কোটি রুপি আয় করাটাও সেরা রেকর্ড।

আগামী উইকএন্ডের ব্যবসা ধরলে দশ কোটি ক্লাবের দিকে সুলতান যে এগিয়ে যাবে সেটাতে কোনো সন্দেহ নেই। একশ কোটির ক্লাব এন্ট্রিতে এটা কিন্তু সালমানের দশম ছবি। এ ব্যাপারে শাহরুখকেও ছাপিয়ে গেলেন তিনি। শাহরুখের মোট ছয়টি ছবি পা রেখেছে একশ কোটি রুপির ক্লাবে। সেই সঙ্গে নিজের রেকর্ডও ভেঙেছেন সালমান।

এত দিন পর্যন্ত সালমানের ছবির ‘বিগেস্ট ওপেনিং’-এর কৃতিত্ব ছিল কবির খানের বজরঙ্গি ভাইজান ছবির দখলে। এবার সে রেকর্ড ভেঙে দিল সুলতান। বলা হচ্ছে, ২০১৬ সালের সব থেকে বড় সাফল্য পাওয়া ছবির তালিকায় সবার থেকে এগিয়ে থাকবে সুলতানই। বলিউডের ইতিহাসে এটিই এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ আয়ের রেকর্ড দখলে রেখেছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow