Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • এমপি বদিসহ মাদকের সাথে যেই জড়িত থাক না কেন সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে: ওবায়দুল কাদের
  • ঈদে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ১ জুন
  • প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক ; এবার ভেনেজুয়েলার দুই কূটনীতিককে বহিষ্কার করল যুক্তরাষ্ট্র
  • পৃথিবীর হয়ে যুক্তরাষ্ট্র সিদ্ধান্ত নেবে না, রুহানির হুঙ্কার
  • ডিএসসিসির নির্দেশনা উপেক্ষা করে বেশি দামে মাংস বিক্রির অভিযোগ
  • তালিকা অনুযায়ী সব মাদক ব্যবসায়ীকে আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • মাদকবিরোধী অভিযানে পাঁচ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৮ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
প্রকাশ : রবিবার, ২৪ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২৩ জুলাই, ২০১৬ ২২:৫১
রাকায়েত সভাপতি, অলিক সা.সম্পাদক
আলোচিত-সমালোচিত ডিরেক্টরস গিল্ড নির্বাচন
শোবিজ প্রতিবেদক
আলোচিত-সমালোচিত ডিরেক্টরস গিল্ড নির্বাচন

ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে হয়ে গেল টেলিভিশন নাট্যনির্মাতাদের সংগঠন ‘ডিরেক্টরস গিল্ড’র প্রথম নির্বাচন। শুক্রবার শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হয় এ নির্বাচন। এ উপলক্ষে শিল্পকলা প্রাঙ্গণ নির্মাতাদের মিলনমেলায় পরিণত হয়। মোট ৩৮৬ ভোটারের মধ্যে ৩৫২টি ভোট প্রদান করেছেন নির্মাতারা। নির্বাচনে গাজী রাকায়েত সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন, আর সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন এস এ হক অলিক।

‘সিলেকশন’ প্রথা থেকে বেরিয়ে দেশে প্রথমবার এ ধরনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় ঘটনাটি বেশ আলোচিত ছিল। বিশেষ করে তরুণ নির্মাতারা ‘সিলেকশন প্রথা’র বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ায় শেষ পর্যন্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু নির্বাচন নিয়ে বেশ সমালোচনাও হচ্ছে। একটি সৃষ্টিশীল সংগঠনের নির্বাচনে ভোট প্রদান প্রক্রিয়া, স্বচ্ছতা, ভোটারদের প্রভাবিত করার ধরন এবং প্রার্থীদের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তবে ভোট প্রদান প্রক্রিয়া এবং স্বচ্ছতা নিয়েই সমালোচনা সবচেয়ে বেশি হচ্ছে। কারণ শুরুতে সব ভোটারের জাতীয় পরিচয়পত্র কিংবা পাসপোর্ট কপি চেক করে ভোট প্রদানের নিয়ম করা হয়। কিন্তু নির্বাচনে এ নিয়ম একেবারেই পালন করা হয়নি। তাই কিছু ভোট নিয়ে কারচুপির অভিযোগ উঠেছে। অন্যদিকে ভোটারদের প্রভাবিত করার ধরন এবং প্রার্থীদের আচরণ নিয়ে অনেকে বিরক্ত। কারণ সৃষ্টিশীল সংগঠনের নির্বাচন হলেও অনেকের আচরণে রাজনৈতিক সংগঠনের আচরণ লক্ষ্য করা গেছে। কিছু প্রার্থী নাকি বাসায় বাসায় গাড়ি পাঠিয়ে, বকেয়া চাঁদা পরিশোধ করে ভোট দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। সব মিলিয়ে সমালোচনা ধীরে ধীরে তীব্র আকার ধারণ করছে।

নির্বাচনে বিজয়ী অন্যরা হচ্ছেন— সহসভাপতি কচি খন্দকার, সকাল আহমেদ এবং সৈয়দ শাকিল। সহ-সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন হৃদি হক ও মাসুদ মহিউদ্দীন। সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান সাগর। অর্থ সম্পাদক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল। প্রচার সম্পাদক জুয়েল মাহমুদ। এ ছাড়া ১০ জন কার্যনির্বাহী সদস্য রয়েছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow