Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:১৮
উত্তমের সেরা নায়িকা সুচিত্রা
শোবিজ প্রতিবেদক
উত্তমের সেরা নায়িকা সুচিত্রা

আজও মনে হয় তারা সত্যিই পরস্পরের জন্য জন্মেছিলেন। সত্যিই একে অপরকে ভালোবেসেছিলেন।

তারা পর্দায় অভিনয় করেননি। সবই ছিল বাস্তব। এমনটি বোধ হয় পৃথিবীতে আর কারও বেলায় ভাবা হয়নি। কিন্তু কেন? পঞ্চাশ আর ষাটের দশককে বাংলা রোমান্টিক সিনেমার সোনালি যুগে পৌঁছে দিয়েছিল এই বিখ্যাত উত্তম-সুচিত্রা জুটি।

এই আকাশছোঁয়া জুটির জনপ্রিয়তার মূলে ছিল দুজনের সুন্দর চেহারা, নাট্য-ক্ষমতা এবং ভারতীয় দর্শকদের ‘যেমনটি চাই তেমনটি’ পুরুষ ও নারীর চরিত্র-চিত্রণ।

সুচিত্রা-উত্তম জুটির প্রধান বিশেষত্ব হলো ওদের পরস্পরের কথোপকথনের ধারা। একে বলা যায় ‘রোমান্স অন এ টি-পট’। এখানে চা হলো প্রেমের তরল ঔষধি— যেটিকে আরও মধুরতর করা হয় যখন প্রথমজন বলেন ‘আর চিনি লাগবে কী?’ অথবা ‘চিনি যথেষ্ট হয়েছে তো?’ আরেকটা পরিচিত দৃশ্য হলো—মধ্যরাতে নায়কের বেডরুমে নায়িকার আগমন এবং নায়িকার এই অসংগত আচরণে রুষ্ট হয়ে নায়কের ক্রোধপ্রকাশ। সম্ভবত এ ধরনের দৃশ্য প্রথম দেখা যায় প্রমথেশ বড়ুয়া পরিচালিত  (১৯০৩-৫১) দেবদাস ছবিতে।

সুচিত্রা সেনের বিপরীতে অভিনয় করে যে অসামান্য সাফল্য উত্তম পেয়েছিলেন—তেমন সাফল্য অন্য কোনো নায়িকার সঙ্গে পাননি। অন্য সুন্দরী ও প্রতিভাময়ী অভিনেত্রী, যেমন, সুপ্রিয়া চৌধুরী (পূর্ব পদবি মুখার্জি) বা অপর্ণা সেনের (পূর্ব পদবি দাশগুপ্ত) বিপরীত রোলও তাকে তেমন সাফল্য দিতে পারেনি।

সুচিত্রা সেনই উত্তমকে ম্যাটিনি আইডল করে তুলেছিলেন। সুচিত্রা না থাকলেও উত্তম কুমার নিশ্চয় সুদক্ষ অভিনেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতেন—যদিও অভিনয় জীবনের প্রথমে এক পরিচালক তাকে ফ্লপ মাস্টার জেনারেল নাম দিয়েছিলেন। রুপালি পর্দায় সুচিত্রা সেনের সঙ্গে জুটি বেঁধেই উনি বাংলা সিনেমার সোনার ছেলে হয়ে ওঠার সুযোগ পান। উত্তম-সুচিত্রার রসায়ন শুধু সেলুলয়েডের পর্দায় সীমিত ছিল না।

বাস্তব জীবনেও তাদের প্রেমের খুনসুটি আমজনতা জেনে গিয়েছিল। মজার ব্যাপার হচ্ছে তাদের এই অতিরিক্ত সম্পর্ককে কেউ বাঁকা চোখে দেখেনি বা শুনে ঠোঁট বাঁকা করেনি। বরং তাদের মিলন না হওয়ায় আফসোস করে বলেছে, ‘আহা তারা কেন একসঙ্গে ঘর বাঁধতে পারলেন না। ’ আসলেই পৃথিবীতে এমন ভাগ্য নিয়ে জন্মেছেন শুধু একটি মাত্র জুটি। তারা হলেন সবার প্রিয় উত্তম-সুচিত্রা।

আজও তারা সবার কাছে বিশেষ করে তরুণ তরুণীর হৃদয়ে প্রেমের উপমা আর উৎসাহের প্রতীক হয়ে আছেন।

এখনো সব শ্রেণি আর বয়সের দর্শকের কাছে পৃথিবীর সেরা জুটি মানে উত্তম-সুচিত্রা জুটি।

কী এমন রহস্য ছিল তাদের মধ্যে যাতে করে তারা এখনো ভালোবাসার সেরা জুটি হয়ে আছেন। হয়তো এই রহস্যের জট কখনই খোলা যাবে না। তারা শুধু হয়ে থাকবেন বাংলা ছবির সেরা জুটি উত্তম-সুচিত্রা জুটি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow