Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৪৬
গণ্ডি পেরোচ্ছেন পরী
শামছুল হক রাসেল
গণ্ডি পেরোচ্ছেন পরী

ক্যারিয়ারের এই স্বল্প সময়ে মুক্তি পেয়েছে ৯টি ছবি। বাপ্পি, সাইমন, জায়েদ খানসহ শাকিব খানের মতো নায়কের বিপরীতে কাজ করেছেন। ভালো-মন্দ মিলিয়ে উিরয়ে গেছেন তিনি। এ ছাড়া ছবি মুক্তির আগে থেকেই আলোচনা ও সমালোচনার চাদর জড়িয়ে দাপিয়ে বিচরণ করেছেন বিভিন্ন পোর্টাল ও সামাজিক সাইটে। ধীরে ধীরে নিজেকে গড়ে তুলছেন। তাই তো প্রথম দিকের ছবির তুলনায় হালের মুক্তি পাওয়া ছবিগুলোতে অনেকটাই পরিপক্ব মনে হচ্ছে তাকে। সর্বশেষ জাজ মাল্টিমিডিয়ার বহুল আলোচিত ছবি ‘রক্ত’র মাধ্যমে নিজের গায়ে অ্যাকশন লেডির তকমা লাগিয়েছেন। এবার সেই গণ্ডি পেরিয়ে বেশ কয়েকটি ভিন্ন চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। এতক্ষণে নিশ্চয়ই পাঠকগণ অনুধাবন করতে পেরেছেন কার কথা বলছি। বলছি, হালের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমণির কথা।

এবার আসি মূল প্রসঙ্গ, যে কারণে কলম ধরা। প্রথম ছবি ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ থেকে শুরু করে পরবর্তী ছবিগুলোতে যে ধরনের চরিত্র ও ইমেজ তুলে ধরেছেন তা এবার খণ্ডাতে যাচ্ছেন পরীমণি। এর মধ্যে মালেক আফসারির অন্তরজ্বালা, ওয়াকিল আহমেদের কত স্বপ্ন কত আশা, গিয়াস উদ্দিন সেলিমের স্বপ্নজাল উল্লেখযোগ্য। এসব ছবিতে কখনো তিনি হয়েছেন শুভ্রা, কখনো সোনামণি, কখনো বা পরী। এ ছাড়া জাহাঙ্গীর আলম সুমনের সোনা বন্ধু ছবিতে দেখা যাবে কাজল চরিত্রে। এদিকে সফিক হাসানের ধূমকেতু ছবিটি এ যাত্রাকে আরও বেগবান করবে বলে মনে করছেন অনেকেই। কারণ এতে তার বিপরীতে রয়েছেন ঢালিউড কিং শাকিব খান। গিয়াসউদ্দিন সেলিমের শুভ্রা চরিত্রে অনেকটা টিনএজ মেয়ের চরিত্রে দেখা যাবে পরীকে। এতে প্রায় মেকাপহীনভাবে তুলে ধরা হয়েছে তাকে। অন্যদিকে মালেক আফসারীর অন্তরজ্বালার সোনামণি চরিত্রটি আরও ব্যতিক্রম।

যেখানে সামাজিক অনেক বাধা ও বিপত্তি পাড়ি দিতে হয় তাকে। এ ছবিতে রয়েছেন তার প্রথম ছবির নায়ক জায়েদ খান। তিনিও অন্তরজ্বালার জন্য নিজেকে দীর্ঘদিন ধরে প্রস্তুত করেছেন। এ ছাড়া ওয়াকিল আহমেদের কত স্বপ্ন কত আশায় যে চরিত্রে অভিনয় করেছেন তাতেও এই পরীকে খুঁজে পাওয়া যাবে না। অর্থাৎ গতানুগতিকের গণ্ডি পেরিয়ে ভিন্ন আঙ্গিকে ভিন্নভাবে ভিন্নভিন্ন সময়ে বড় পর্দায় আবির্ভাব হতে যাচ্ছেন তিনি। সব মিলিয়ে নতুনভাবে পরীকে আবিষ্কার করতে যাচ্ছেন ঢাকাইয়া চলচ্চিত্রের দর্শকরা। অন্যদিকে তার বেশ কয়েকটি ছবি মুক্তির জন্য হাঁসফাঁস করছে ও শেষের পথে। বাংলাদেশ প্রতিদিনকে পরীমণি বলেন, ‘অতীতের ভুলত্রুটি শুধরে নিজেকে গড়েছি। সোনা যেমন পুড়ে পুড়ে খাঁটি হয় হয়তো সেরকম চেষ্টা করছি। এটা সত্য যে, প্রথম দিকে অনেকটাই পরিপক্ব ছিলাম না তবে এখন আর সে অভিযোগের আঙ্গুল মনে হয় তোলা যাবে না। পরী আরও বলেন, সামনে যে ছবিগুলো মুক্তি পেতে যাচ্ছে সবগুলোতেই পুরোপুরি ভিন্ন চরিত্র ও ভিন্নরূপে দেখতে পাবেন। বলতে পারেন এটি আমার ক্যারিয়ারের পার্ট-টু হতে যাচ্ছে। বাকিটা দর্শকরাই বিচার করবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow