Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:৪৫
গাজী মাজহারুল আনোয়ারের ফিরে আসা
শোবিজ প্রতিবেদক
গাজী মাজহারুল আনোয়ারের ফিরে আসা

গাজী মাজহারুল আনোয়ার, একাধারে চলচ্চিত্র পরিচালক, গীতিকার, সুরকার, কাহিনীকার, চিত্রনাট্যকার, সংলাপাকার, প্রযোজক এবং পরিবেশক। স্বাধীন বাংলা বেতারের সূচনা সংগীত ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’ ও অন্যান্য সাংস্কৃতিক অবদানের জন্য স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম প্রেসিডেন্ট গোল্ড মেডেল পান তিনি।

পরে একুশে পদকও পান। ৭৩ বছর বয়সী গুণী এই সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বের জীবদ্দশায় তাকে নিয়ে ভিন্ন ধরনের এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। গাজী মাজহারুল আনোয়ারের কন্যা দিঠি জানান, তারই চাচা ইমরুল আনোয়ারের উদ্যোগে বিশেষ সম্মাননা শীর্ষক সংগীতানুষ্ঠান ‘ট্রিবিউট টু গাজী মাজহারুল আনোয়ার’- এর আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা ৬০টি গান পরিবেশন করবেন কনকচাঁপা, বাদশা বুলবুল, দিঠি আনোয়ার ও অপু। আজ একটি ক্লাবে রাত ৮টায় অনুষ্ঠানটি শুরু হবে। গাজী মাজহারুল আনোয়ার বলেন, ‘এই অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা আমারই ছোটভাই লিটন। পারিবারিকভাবে তাদের একটা উপলব্ধি এসেছে যে, আমার লেখা হাজার হাজার গান হয়তোবা মানুষের স্মৃতি থেকে মুছে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ এ দেশে প্রিজারভেশনের জন্য তেমন বিশেষ কোনো আর্কাইভ হয়নি। আজকের এই অনুষ্ঠানটি তারই একটি প্রক্রিয়া। এটা যদি ধারাবাহিকভাবে হতে থাকে তাহলে আগামী প্রজেন্মের কাছে আমাদের কর্ম পৌঁছাতে থাকবে। ’ কনকচাঁপা বলেন, ‘গাজী ভাইয়ের লেখা প্রথম আমি প্লে-ব্যাক করি খেয়া ঘাটের মাঝি সিনেমায়। এরপর আরও বেশকিছু গান গাওয়ার সৌভাগ্য হয়েছে আমার। আজ তাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে তারই লেখা গান গাইব, এটা আমার জন্য অনেক আনন্দের, অনেক গর্বের। ’ দিঠি বলেন, ‘এমন একজন মানুষের সন্তান যাকে নিয়ে বাংলাদেশ গর্ব করে, যাকে নিয়ে বিশ্ব গর্ব করে। এর চেয়ে বড় পাওয়া আমার জীবনে আর কী-ই-বা হতে পারে। বাবার লেখা গান গাইব বাবারই সামনে আজ। ভালোভাবে যেন গাইতে পারি এই দোয়াটাই চাই সবার কাছে। ’ এদিকে গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা গান নিয়ে দেশের বিভিন্ন শিল্পী চ্যানেল আইয়ে প্রচার চলতি ‘পালকি’ অনুষ্ঠানে গাইছেন। ১৯৭২ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর গাজী মাজহারুল আনোয়ার জোহরা হোসেইনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। জোহরা হোসেইন তৎকালীন বিটিভির সংবাদ পাঠিকা, মহিলাবিষয়ক সংস্কৃতি অনুষ্ঠানের উপস্থাপিকা, ইস্ট পাকিস্তান স্পোর্টসের রানিং আইটেম চ্যাম্পিয়ন, চলচ্চিত্র প্রযোজনা সংস্থা দেশ চিত্রকথার কর্ণধার।

up-arrow