Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ৬ জানুয়ারি, ২০১৫ ০০:০০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৩০ নভেম্বর, -০০০১ ০০:০০
অর্জন
আবারও সেরা অনন্ত
আবারও সেরা অনন্ত

আবারও সেরা হলেন চলচ্চিত্রকার অনন্ত জলিল। দর্শক জরিপে ২০১৪ সালের আলাচিত সেরা ব্যক্তিত্ব হলেন তিনি।

অনন্তকে নিয়ে দেশে রয়েছে একাধিক ফ্যান ক্লাব। এর মধ্যে কয়েকটির সম্মিলিত জরিপে দেখা গেছে, একাধিক কারণে গত বছরের পুরোটা সময় আলোচনা ও খ্যাতির শীর্ষে ছিলেন অনন্ত। আজ ডিএমপির বিদায়ী কমিশনার বেনজীর আহমেদের বিদায় সম্বর্ধনা এবং নতুন কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার বরণ অনুষ্ঠানে অনন্ত জলিলকে বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ডিএমপি। কোনো চলচ্চিত্রকারকে পুলিশের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো এটিই প্রথম। এর আগে ২০১৩ সালে ঢাকা ক্যান্টনমেন্টে এবং গত বছর ময়মনসিংহ ক্যান্টনমেন্টে অনন্তকে আমন্ত্রণ এবং বিরল সম্বর্ধনা দেয় সামরিক বাহিনী। এটিও এদেশে কোনো চলচ্চিত্রকারের জন্য প্রথম। এতে সামরিক বাহিনীকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের ঘোষণা দেন অনন্ত এবং 'সৈনিক' নামে একটি ছবি নির্মাণে অনন্তকে সহযোগিতা করছেন লে. জেনারেল হাসান সারওয়ার্দী। গত বছর দেশ টিভি অনন্তকে উপস্থাপক করে নির্মাণ করে ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠান 'ফেস টু ফেস উইথ অনন্ত'। অনন্তর কারণে আকাশছোঁয়া জনপ্রিয়তা পায় অনুষ্ঠানটি। গত বছর সরকার পঞ্চমবারের মতো সিআইপির মর্যাদা দেয় অনন্তকে এবং গত বছর নিজের পরিচালিত একটি মাত্র ছবি 'মোস্ট ওয়েলকাম টু' দিয়ে সাড়া জাগান এবং প্রশংসায় মুখর থাকেন তিনি। চলচ্চিত্র জীবনের শুরু থেকেই নায়ক ও নির্মাতার সেরা আসনটি ধরে রেখেছেন জনপ্রিয় চলচ্চিত্রকার অনন্ত। সিনেপ্লেঙ্গুলো দর্শকের চাপে অন্য ছবি নামিয়ে অনন্তর ছবির শো বাড়িয়ে দিতে বাধ্য হয়। এটিও এদেশে অনন্তর জন্য অনন্য রেকর্ড। দর্শকের কথায় ঢালিউডের সেরা নায়কের আসন এখন একমাত্র অনন্ত জলিলের। তার ধারেকাছে কেউ নেই।

 

 

আপনার মন্তব্য

up-arrow