Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১২:০১
নানা রঙের অক্ষয়
অনলাইন ডেস্ক
নানা রঙের অক্ষয়

বলিউড খিলাড়ি অক্ষয় কুমার হাফ সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে গেলেন আরেক ধাপ। আজ ৪৯ পূর্ণ করলেন তিনি।

১৯৬৭ সালের এদিনে ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের অমৃতসরে জন্ম রাজীব হারি ওম ভাটিয়া ওরফে অক্ষয় কুমারের। মঞ্চে আলো ছড়িয়ে পরিচিতি পাওয়া এ অভিনেতা বলিউডে নব্বই দশকেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন।

নানা ধরণের নিরীক্ষাধর্মী চলচ্চিত্রে কাজ করার ক্ষেত্রে অক্ষয়ের বেশ সুনাম। এ বছর তার মোট তিনটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। তিনটিতেই তার চরিত্র ভিন্ন। বলিউডের বড় মাপের অভিনেতারা বছরে একটি ছবি মুক্তি দিয়েই তার ব্যবসায়িক সাফল্য নিশ্চিত হবে কী না- তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন। মজার ব্যাপার হলো, অক্ষয়ের বছর প্রতি একাধিক হিট ছবি থাকেই। এ বছরে মুক্তি পাওয়া অক্ষয়ের তিনটি ছবিই ব্যবসায়িক সফলতা পেয়েছে।

বলিউডের বড়-ছোট সব অভিনেতাই অভিনয়ে স্টান্টম্যান ব্যবহার করেন। কিন্তু মার্শাল আর্টে প্রশিক্ষণ নেয়া অক্ষয় নিজেই তার ছবিতে ঝুঁকিপূর্ণ ছবিতে অভিনয় করেন। আর অন্য অনেক বিষয়ের মতো এ বিষয়টিতেও তিনি সবার চেয়ে আলাদা। এক সময় অক্ষয়কে কঠোর দারিদ্র্যের সঙ্গে লড়াই করতে হয়েছে। বাধ্য হয়ে রেস্তোরাঁতেও কাজ করেছেন তিনি।

কিন্তু কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে সে অবস্থার পরিবর্তন আনতে সক্ষম হয়েছেন অনেক আগেই। চলতি বছরের ২৫ আগস্ট প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় সাময়িকী ফোর্বস জানায়, বিশ্বের সবচেয়ে ধনী অভিনেতার তালিকায় অক্ষয়ের অবস্থান ১০ নম্বরে। গত বছরের জুন থেকে এ বছরের জুন পর্যন্ত অক্ষয়ের আয় ৩১ মিলিয়ন ডলার। বর্তমানে 'টু পয়েন্ট জিরো' ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন খিলাড়ি কুমার হিসেবে পরিচিত এ অভিনেতা।

বলিউডে এ পর্যন্ত শতাধিক ছবিতে কাজ করেছেন অক্ষয়। চরিত্রের দৈর্ঘ কিংবা গুরুত্ব যাই হোক, সময় থাকলে অক্ষয় যে কোনো নির্মাতার সাথেই কাজ করেন। বেশি বেশি কাজ করেন বলে স্বভাবতই অন্য সবার চেয়ে বেশিই ব্যস্ত সময় পার করতে হয় তার। কিন্তু ভীষণ দায়িত্বশীল অক্ষয় সব ব্যস্ততার মাঝেও পরিবারের জন্য সময় বের করেন। প্রতি রবিবার তিনি কোনো কাজই হাতে নেন না। প্রতি সপ্তাহে অক্ষয়ের ওই দিনটা শুধুই পরিবারের জন্য।   

   

বিডি-প্রতিদিন/০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ /ফারজানা

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow