Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:২১
বিদেশী জীবনসঙ্গীদের নিয়ে যেসব বলিউড তারকারা
অনলাইন ডেস্ক
বিদেশী জীবনসঙ্গীদের নিয়ে যেসব বলিউড তারকারা

বলিউড তারকাদের খ্যাতির গুঞ্জন যেমন রয়েছে তেমনি নানা বিষয়ে সমালোচনাও হয়েছে। প্রায়ই বলি পাড়ায় বিভিন্ন তারকার প্রেমলীলার খবর ছড়ায় মিডিয়াতে।

আজকে রইলো সেই সব বলিউড তারকাদের কথা, যারা হয় কোন বিদেশীকে নিজের জীবনসঙ্গী হিসেবে নির্বাচন করেছেন বা তাদের সঙ্গে প্রেম করেছেন।

 

 

সালমান খান এবং ইউলিয়া ওয়ান্টুর: 


প্রথমে ক্যাটরিনা কাইফ তারপর এখন ইউলিয়া ওয়ান্টুর। সালমান বরাবরই বিদেশী নারী পছন্দ করেন। শোনা যাচ্ছে এইবার শুধু প্রেম নয় রোমানিয়ান মডেল এবং টিভি সঞ্চালিকা ইউলিয়ার সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতেও বসবেন তিনি।

 

সুস্মিতা সেন এবং ওয়াসিম আক্রাম: 


দুজনে মিল একসঙ্গে ছোটপর্দার রিয়েলিটি শো 'এক খিলাড়ি এক হাসিনা'-র সঞ্চলনা করতে গিয়ে নাকি প্রেমে পড়েন। তবে এই সম্পর্কের কথা কোনদিন স্বীকার করেন নি সুস্মিতা।

 

সাইফ আলি খান এবং রোসা কাটলানো: 


অমৃতা সিং এর সঙ্গে ১৪ বছর দাম্পত্য জীবন পালন করার পর এবং দুই সন্তানের বাবা হওয়া সত্ত্বেও সাইফ বউকে লুকিয়ে এই বিদেশিনী মডেলের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। অবশ্য বেশিদিন এই সম্পর্ক টেঁকে নি।

 

কঙ্গনা রানাওয়াত এবং নিকোলাস লাফার্টি: 


বলিউডের কুইন যদিও নিকোলাসের সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা কোনদিন স্বীকার করেন নি কিন্তু দুই জনকে তখন মোটামুটি সব সময় একসঙ্গেই দেখা যেত। ২০১২ সালে তাদের ব্রেক আপ হয়ে যায়।

 

আমির খান এবং জেসিকা হাইনেস: 


হ্যাঁ, ঠিকই শুনছেন। শোনা যায় 'গুলাম' ছবির সেটে ব্রিটিশ সাংবাদিক জেসিকার সঙ্গে আলাপ হয় মিস্টার পার্ফেকশনিস্টের এবং সেই থেকে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তারা। এখানেই শেষ নয় শোনা যায় আমির এবং জেসিকার এক পুত্র সন্তানও আছে। যদিও পুরোটাই মিথ্যা বলে উড়িয়ে দেন আমির‚ কিন্তু জেসিকার ছেলের সঙ্গে আমিরের মুখের এতটা মিল কী করে হলো কে জানে!

 

প্রীতি জিন্তা এবং জেনে গুডএনাফ: 


নেস ওয়াদিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিন প্রেম করার পর তাদের সম্পর্ক ভেঙে যায়। এর কিছুদিন পর শোনা যায় প্রীতি নাকি একজন বিদেশী যুবকের সঙ্গে প্রেম করছেন। যদিও প্রথমে এই সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেন প্রীতি কিন্তু ঐ বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে চুপি চুপি লস এঞ্জেলসে বিয়ে হয় তাদের।

 

অমৃতা অরোরা এবং উসমান আফজাল: 


এখন অমৃতা ব্যবসায়ী শাকিল লাদাকের সঙ্গে বিবাহিত। কিন্তু তার আগে উনি বেশ কিছুদিন পাকিস্তানে জন্মানো ব্রিটিশ ক্রিকেটার উসমান আফজলের সঙ্গে প্রেম করেছেন।

 

সেলিনা জেটলি এবং পিটার হাগ:

প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া এবং অভিনেত্রী সেলিনা শুধুমাত্র প্রেম নয় বিয়ের পিঁড়িতেও বসেছেন এই অস্ট্রেলিয়ান বিজনেসম্যানের সঙ্গে। তাদের দুই যমজ পুত্রও আছে।

 

নীনা গুপ্তা এবং ভিভিয়ান রিচার্ডস: 


বিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও কিংবদন্তী ক্রিকেটার ভিভিয়ান নীনার প্রেমে পড়েন। নীনা কোনদিন তার এই সম্পর্কের কথা লুকিয়ে রাখেন নি। তাদের কোনদিন বিয়ে হয় নি কিন্তু এই সম্পর্ক থেকে জন্ম নেয় তাদের মেয়ে মাসাবা। মাসাবা মায়ের কাছেই বড় হয়েছে কিন্তু ভিভিয়ানের সঙ্গেও ভালো সম্পর্ক আছে তার। মাসাবা নিজে একজন ফ্যাশন ডিজাইনার এবং এই বছর বিয়ের পিঁড়িতেও বসেছেন তিনি।

 

মধু সাপ্রে এবং জিয়ান মারিয়া: 


মিলিন্দ সোনমের সঙ্গে দীর্ঘদিন প্রেম করার পর তার সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে যায় মধুর। এর কিছুদিন পর তার আলাপ হয় ইটালিয়ান ব্যবসায়ী জিয়ান মারিয়ার সঙ্গে। ২০০০ সালে বিয়েও হয় তাদের। দুজনের একটা মেয়েও আছে নাম ইন্দিরা। বিয়ের পর মধু ইটালিতেই সেটল হয়েছেন।

 

কবীর বেদী এবং সুজান হাম্প্রে: 


কবীর বেদীর এখন পর্যন্ত চারবার বিয়ে হয়েছে। তার দ্বিতীয় বিয়ে ব্রিটিশ ফ্যাশন ডিজাইনার সুজানের সঙ্গে। সম্প্রতি কবীর তার দশ বছরের পুরনো প্রেমিকা পার্ভিন দোসাঞ্জের সঙ্গে চতুর্থ বিয়ে সম্পন্ন করেছেন।

 

মিলিন্দ সোনম এবং মাইলেন জাম্পানোয়: 


মধু সাপ্রের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়ার পর মাইলেনের সঙ্গে পরিচয় হয় মিলিন্দের। মাইলেন তার সহ অভিনেত্রী ছিলেন। তিনি আধা ফ্রেঞ্চ আধা চাইনিজ ছিলেন। ২০০৬ সালে বিয়েও হয় তাদের। কিন্তু তিন বছরের মাথায় বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায়।


বিডি প্রতিদিন/২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬/হিমেল

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow