Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • ২ জুন থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু
  • রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বন্য হাতির আক্রমণে ১০ মাসে নিহত ১৩
  • সাতক্ষীরায় যুবলীগ-শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ২
  • তাসফিয়া হত্যায় 'তৃতীয় পক্ষের' ইন্ধন নিয়ে সন্দেহ পরিবারের
  • বান্দরবানে পাহাড় ধসে নারীসহ ৫ শ্রমিক নিহত
  • সাভারে কাউন্সিলরের লোকজনের সাথে ছাত্রলীগের সংর্ঘষ-গুলি, আহত ২০
  • কেরালায় নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৯ জনের মৃত্যু
  • নাজিব পরাজয় মেনে নিতে চাননি: আনোয়ার ইব্রাহিম
  • রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
  • মাদকবিরোধী অভিযান; রাতে ৭ জেলায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৯
প্রকাশ : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৯:২৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৯:৫৮
১৮২ বার পর্দায় মরেছেন এই ভিলেন!
অনলাইন ডেস্ক
১৮২ বার পর্দায় মরেছেন এই ভিলেন!

বলিউড হোক বা দক্ষিণী সিনেমা, অথবা বাংলা ছবি। খলনায়কের ভূমিকায় বর্তমানে আশীষ বিদ্যার্থীর জুড়ি মেলা ভার। সানি দেওল থেকে শুরু করে হৃতিক রোশন, বা হালে বাংলার জিৎ, দেব। পর্দায় অনেকের হাতেই মরতে হয়েছে তাকে। আশীষ বিদ্যার্থী একবার শ্যুটিং করতে গিয়ে সত্যিই মরতে বসেছিলেন। 

সাম্প্রতিক একটি সাক্ষাৎকারে আশীষ জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত সিনেমায় ভিলেনের চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে কম বেশি ১৮২ বার মরতে হয়েছে তাকে। এখন কোনও সিনেমায় তাকে নতুন কোনো উপায়ে মারা যায়, তা ভেবে বার করতেই চিত্রনাট্যকার এবং পরিচালকদের মাথার চুল ছেড়ার অবস্থা হয় বলে নিজেই মজা করেছেন আশীষ।

কিন্তু বাস্তবে সিনেমার শ্যুটিং করতে গিয়ে সত্যি সত্যিই মরতে বসেছিলেন আশীষ বিদ্যার্থী। 'বলিউড ডায়েরিজ' নামে একটি ছবির শ্যুটিং করার সময় ছত্তিশগড়ের দুর্গে একটি জলাশয়ের মধ্যে ডুবেই যাচ্ছিলেন আশীষ এবং তার এক সহ-অভিনেতা। 

চিত্রনাট্য অনুযায়ী আশীষ পানিতে নেমেছিলেন। কিন্তু তিনি এবং তার এক সহ-অভিনেতা জলাশয়ের তুলনামূলকভাবে গভীর অংশে চলে যান। তখনই তারা ডুবতে শুরু করেন। প্রথমে অনেকেই ভেবেছিল সিনেমার গল্প অনুযায়ী ডুবে যাচ্ছেন দুই অভিনেতা। শেষ পর্যন্ত বিপদ বুঝে এক পুলিশকর্মী আশীষ বিদ্যার্থী এবং তার সহ-অভিনেতার প্রাণ বাঁচান। সেদিন ওই শ্যুটিং স্পটে নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন ওই পুলিশকর্মী।

প্রায় তিন দশক ধরে অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত থাকা আশীষ ১৯৯৫ সালে 'দ্রোহকাল' ছবিতে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ সহ-অভিনেতার পুরস্কার জিতেছিলেন।

বিডি প্রতিদিন/১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow