Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৩ আগস্ট, ২০১৭ ০১:৪৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৩ আগস্ট, ২০১৭ ০২:২৫
অবসান ঘটল সেই দ্বন্দ্বের
অনলাইন ডেস্ক
অবসান ঘটল সেই দ্বন্দ্বের

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি ও পরিবারের সদস্যদের মধ্যেকার দ্বন্দ্বের অবসান হয়েছে। সেই সঙ্গে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে সবাই মিলেমিশে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

শনিবার রাতে সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদের আমন্ত্রণে তার বাসভবনে চলচ্চিত্র পরিবারের সদস্য ও চলচ্চিত্র প্রর্দশক সমিতির নেতৃবৃন্দরা এক বৈঠকে বসেন। সেখানে প্রদর্শক সমিতির সঙ্গে চলচ্চিত্র পরিবারের সদস্যদের মধ্যেকার দ্বন্দ্বের অবসান হয়। এছাড়া  কি কি পদক্ষেপ নেয়া যায়? এ বিষয়েও আলোচনা হয়।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র পরিবারের আহবায়ক অভিনেতা ফারুক, সদস্য সচিব বদিউল আলম খোকন, শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, সহ সভাপতি রিয়াজ ও প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু, চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাজী শোয়েব রশীদ. সমিতির উপেদেষ্ঠা সুদীপ্ত চৌধুরী ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিয়া আলাউদ্দীন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দীন নওশাদ বলেন, ‘ আমার ওপর হামলার ঘটনায় তারা দুঃখপ্রকাশ করেছেন। চলচ্চিত্রের উন্নয়নের জন্যই নিজেদের মধ্যে বিরোধ রাখতে চাইনা। এখন সবাই মিলেমিশে চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজ করতে চাই। ’

গত ২১ জুন চলচ্চিত্র পরিবারের আন্দোলনে সেন্সর বোর্ডের সামনে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ও সেন্সর বোর্ডের সদস্য ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ  হামলার শিকার হন । সম্প্রতি এ হামলার প্রতিবাদে চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায়  ‘মিশা সওদাগর, রিয়াজ, জায়েদ খান, মুশফিকুর রহমান গুলজার, বদিউল আলম খোকন এবং খোরশেদ আলম খসরুর কোনো ছবি না চালানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আপনার মন্তব্য

up-arrow