Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৬:৩৮ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৯:৫৮
চ্যালেঞ্জ মাথায় নিয়েই কাজ করেছি : পূজা
চ্যালেঞ্জ মাথায় নিয়েই কাজ করেছি : পূজা
ছবি : জাজ মাল্টিমিডিয়ার সৌজন্যে।

আগামী শুক্রবার মুক্তি পেতে যাচ্ছে যৌথ প্রযোজনার ছবি 'নূরজাহান'। এতে অভিনয় করেছেন​ বাংলাদেশের পূজা চেরি। তার বিপরীতে রয়েছেন কলকাতার আদ্রিত। এই ছবির মাধ্যমে শিশুশিল্পী থেকে নায়িকা হিসেবে অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে পূজার। অর্থাৎ তিনি ঝেড়ে ফেলতে যাচ্ছেন শিশুশিল্পীর তকমা। দর্শকদের কাছে তার জন্য এ এক নতুন চ্যালেঞ্জ। এ সব নিয়েই বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানালেন কিছু কথা। পাঠকদের জন্য তা তুলে ধরেছেন  শামছুল হক রাসেল

কেমন আছেন?
খুব ভালো। অনেক হ্যাপিও বটে। কারণ এই প্রথম হিরোইন হিসেবে আমার ছবি মুক্তি পাচ্ছে। 'সো আই অ্যাম এক্সাইটেড অ্যান্ড হ্যাপি।' 

শিশুশিল্পী থেকে নায়িকা, চ্যালেঞ্জও বটে...
হ্যাঁ, তা তো অবশ্যই। সে বিষয়টা মাথায় রেখেই চেষ্টা করেছি, করেছি অভিনয়। কারণ এর আগে সব অন্য ধরনের শিশু ক্যারেক্টার প্লে করতাম। এখন একজন হিরোইন হিসেবে আরেক ধরনের। এছাড়া, হিরোইন হিসেবে পুরোটা ছবি আমাকেই টানতে হচ্ছে। যেহেতু এটা একটা রোমান্টিক মুভি, তাই হিরো-হিরোইনকে ঘিরে গড়ে উঠেছে গল্পটা। আমি সেভাবেই চেষ্টা করেছি অভিনয়ের সেরাটা ঢেলে দিতে। এখন দর্শকরা যদি হলে গিয়ে সিনেমাটা দেখেন তাহলে ভালো একটা ইন্সপায়ারেশন পাবো। আর তাতেই আমার স্বার্থকতা।

এখনও স্কুলে পড়ছেন, অভিনয় আর পড়াশোনার সমন্বয় কিভাবে?
এখন ১০ম শ্রেণিতে পড়ছি, অর্থাৎ আগামী বছর এসএসসি পরীক্ষা দেবো। এটা সত্য যে, পড়াশোনার পাশাপাশি অন্য দিকে মনোযোগ দিতে গেলে একটু হ্যাম্পার হয় ঠিকই, কিন্তু সেই ক্ষতিটা পূরণ করার চেষ্টা করি। যেকোনো জায়গায় বই-খাতা নিয়ে যাই, সুযোগ পেলেই পড়ার চেষ্টা করি। এছাড়া শিক্ষক-শিক্ষিকারাও হেল্প করেন। 

 

স্বল্প এই পথচলায় পরিবারের সমর্থন কেমন পেয়েছেন?
আমি ছোটবেলা থেকে নাচ, গান এমনকি ফাইট শিখেছি। ছোটবেলায় মন স্থির করেছি মিডিয়াতে কাজ করব। গোটা পরিবার আমাকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে। এখনও বিভিন্নভাবে সাপোর্ট করে যাচ্ছে। তারা বলেন, 'যা করছো করে যাও, আরও ভালো করে করার চেষ্টা করো'। মা-বাবা, ভাই তিনজনই এই ব্যাপারে আমাকে উৎসাহ দেয়। 

'নূরজাহান' নিয়ে প্রত্যাশা...
যদিও বড় পর্দায় আমি পুরোপুরি নতুনভাবে উপস্থাপিত হতে যাচ্ছি, তারপরও বলতে চাই চলচ্চিত্রে এখন অনেক পরিবর্তন এসেছে। মানুষের রুচিরও পরিবর্তন ঘটেছে। দর্শকরা এখন যা চান তার পুরোপুরি প্রতিফলন পাবে এই 'নূরজাহান' ছবিতে। এটি অন্যরকম একটি ছবি, গতানুগতিক প্রেম নির্ভর নয়। বাকিটা দর্শকদের হাতেই ছেড়ে দিলাম।

বিডি-প্রতিদিন/১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow