Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৭ আগস্ট, ২০১৮ ১৪:১৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৭ আগস্ট, ২০১৮ ১৪:২৭
'নিজেকে আইকন হিসেবে উপস্থাপন করাটাকে বেশি পছন্দ করি'
'নিজেকে আইকন হিসেবে উপস্থাপন করাটাকে বেশি পছন্দ করি'

ঈদে যে কয়টি ছবি মুক্তির মিছিলে রয়েছে তার মধ্যে একটি 'বেপরোয়া'। আর এ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে মডেল খালেদ হোসেন সুজনের। এখানে তাকে দেখা যাবে খলনায়ক চরিত্রে। ছবিতে অভিষেক ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন- শামছুল হক রাসেল।

কেমন আছেন
আলহামদুলিল্লাহ... ভালো আছি।

বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?
যেহেতু ঈদে ছবি আসছে তাই প্রচারণা নিয়ে কিছু কাজ করছি। অসুস্থ ছিলাম। এখন সুস্থ হয়ে উঠছি এবং পাশাপাশি অন্যান্য প্রজেক্ট নিয়ে ভালোভাবে চিন্তা করছি। 

বড়পর্দায় এটি প্রথম ছবি?
হ্যাঁ। 'বেপরোয়া' ছবির মাধ্যমেই বড় পর্দায় অভিষেক ঘটছে আমার। 

কিন্তু অনেকেই জানে না আপনিও আছেন এ ছবিতে। এটা কী স্ট্যান্টবাজি?
হা. হা.. হা... বলতে পারেন অনেকটা ইচ্ছা করেই। প্রোডাকশন হাউজ চাচ্ছিল আমার ব্যাপারটা গতানুগতিকভাবে না আসুক। হঠাৎ করে মানুষ যেন আমাকে পর্দায় দেখে চমকে যায়- এরকম একটা ব্যাপার ছিল। জাজ তো সবসময় কিছু না কিছু সারপ্রাইজ নিয়ে আসে। আমাকেও সেভাবে বলা হয়েছিল। 

ছবিতে আপনার চরিত্র নিয়ে বলুন...
এটি মূলত সামাজিক ছবি। এখানে আমি মূল খলনায়কের চরিত্রে আছি।

প্রথম ছবিতেই খলনায়কের তকমা লেগে যাচ্ছে। এটা থেকে বের হতে পারবেন?
এটা বিষয়টা দর্শকের হাতে ছাড়তে চাই। তারাই বলবে তারা আমাকে নায়ক হিসেবে দেখতে চান, না খলনায়ক হিসেবে। তবে যে জায়গা থেকে শুরু করেছি তাতে সন্তুষ্ট। বাংলাদেশে নায়কদের জায়গা যতটা খালি আছে তার চেয়ে বেশি খালি খলনায়কের জায়গাটা। সত্যি কথা বলতে কী, অভিনয় নিয়মিত করতে চাইলে এ জায়গায় ভালো সুযোগ আছে। 

বড় পর্দায় নিয়মিত হবেন?
বড় পর্দায় আমি ভালো কিছু চরিত্র করতে চাই। এ ছবির ৬/৭ মাস আগে নায়কের চরিত্রে কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলাম। কিন্তু আমি করিনি। চেয়েছি চরিত্র যাই হোক, ইতিবাচক কিংবা নেতিবাচক, কিন্তু চরিত্রটার যেন গুরুত্ব থাকে ব্যতিক্রম কিছু করার সুযোগ থাকে। জাজ আমাকে এ ছবিতে প্রস্তাব দেয়ার শুরুতেই রাজি হয়ে যাই। 

অভিনয়ে কাউকে রোল মডেল ভাবেন?
আমি বিশ্বাস করি সবাই আলাদা ব্যক্তিসত্ত্বা। আমি কাউকে অনুসরণ করি না। আজ আমি এখানে আছি এখান থেকে নিজেকে আরও সামনের দিকে নিয়ে যাব। মানুষ আলাদাভাবে গ্রহণ করবে। আমি নিজেকে আইকন হিসেবে উপস্থাপন করাটাকে বেশি পছন্দ করি।

'বেপরোয়া' ঈদের মতো বড় উৎসবে মুক্তি পাচ্ছে, প্রত্যাশা...
ছবিটি ঈদের ১/২ মাস আগেই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কাজ শেষ না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত আর হয়নি। চেয়েছিলাম ছবিটি যেন কোনো উৎসব উপলক্ষ্যে মুক্তি পায়। অবশেষে আমার মনের আকাঙ্ক্ষাটা পূরণ হয়েছে। এটা অনেক বড় সুযোগ।

পরবর্তী কাজের খবর কী?
বিস্তারিত কিছু বলতে পারবো না। এই মুহূর্তে ২/৩ টি বড় কাজের কথা চলছে। অনেক ভালো কিছু কাজ অপেক্ষা করছে। ২/৩ মাসের মধ্যে আপনারা জানতে পারবেন। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow