Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:০৩ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ২০:৪৩
আইসিইউ'তে চলচ্চিত্র নির্মাতা আমজাদ হোসেন
শোবিজ প্রতিবেদক
আইসিইউ'তে চলচ্চিত্র নির্মাতা আমজাদ হোসেন
ফাইল ছবি

ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তি নির্মাতা আমজাদ হোসেন। 

রবিবার দুপুরে রাজধানীর একটি হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে(আইসিইউ) তাকে রাখা হয়েছে। আমজাদ হোসেনের পারিবারিক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

আমজাদ হোসেনের ছেলে নির্মাতা অভিনেতা সোহেল আরমান বলেন, ‘আব্বাকে হাসপাতালে আনার পর ডাক্তার জানিয়েছেন ব্রেন স্ট্রোক হয়েছে। আব্বার শারীরিক অবস্থা ভালো না। আপাতত আইসিইউতে রাখা হয়েছে।' 

সবার কাছে দোয়া চেয়ে তিনি আরও বলেন, আমার আব্বাকে আল্লাহ যেন সুস্থভাবে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দেন।' 

একুশে পদকপ্রাপ্ত আমজাদ হোসেন একাধারে অভিনেতা, পরিচালক ও ঔপন্যাসিক। তিনি ১৯৬১ সালে ‘হারানো দিন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় দিয়ে সিনেমায় পা রাখেন। পরবর্তীতে চিত্রনাট্য রচনা ও পরিচালনায় মনোনিবেশ করেন। তার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘আগুন নিয়ে খেলা’ (১৯৬৭)।  

পরবর্তীতে আগুন নিয়ে খেলা (১৯৬৭), দুই ভাই (১৯৬৮), নয়নমনি (১৯৭৬), গোলাপী এখন ট্রেনে (১৯৭৮), সুন্দরী (১৯৭৯), কসাই (১৯৮০), দুই পয়সার আলতা (১৯৮২), জন্ম থেকে জ্বলছি (১৯৮২), ভাত দে (১৯৮৪), গোলাপী এখন ঢাকায় (১৯৯৪), আদরের সন্তান (১৯৯৫), সুন্দরী বধূ (২০০২), প্রাণের মানুষ (২০০৩), গোলাপী এখন বিলাতে (২০১০) নামের প্রভৃতি ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছেন।

এর মধ্যে ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ এবং ‘ভাত দে’ চলচ্চিত্রের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। সৃজনশীল কর্মকাণ্ডের জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে ১৯৯৩ মালে একুশে পদকে ভূষিত করেন।

এছাড়া সাহিত্য রচনার জন্য তিনি ১৯৯৩ ও ১৯৯৪ সালে দুইবার অগ্রণী শিশু সাহিত্য পুরস্কার ও ২০০৪ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।

বিডি-প্রতিদিন/১৮ নভেম্বর, ২০১৮/মাহবুব

 

আপনার মন্তব্য

up-arrow