Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ৬ মার্চ, ২০১৭ ২০:০৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৬ মার্চ, ২০১৭ ২০:১৮
আমি আবারও সিউর হতে বললাম
শাহীন রহমান
আমি আবারও সিউর হতে বললাম

মার্চ ২০১৩। সন্ধ্যা সোয়া ছয়টা থেকে পৌনে সাতটা ! সিঙ্গাপুর থেকে এমপি ইসরাফিল ভাই ফোন দিলেন, ফোন ধরতেই ওপাশ থেকে তার অঝরে কান্না শুনলাম।

তিনি হাওমাও করে কাঁদছেন!

কান্নার চোটে তার কথা কিছুই বুঝতে পারছি না কিন্তু কান্নার কারণটা আমি মুহূর্তেই বুঝে নিলাম ! লাইন কেটে দিয়ে তারে রিং ব্যাক করলাম ! অঝোরে কাঁদতে কাঁদতে তিনি বললেন, জলিল ভাই আর নেই ! সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জলিল ভাই চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

আমি আবারও তার কাছে সিউর হতে বললাম ! উনি সিউর দিলেন, ইন্না লিল্লাহে ……… রাজিউন বলে লাইন কেটে দিলাম। ইসরাফিল ভাই তৎকালীন স্পিকার, বর্তমানে মাননীয় রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদকেও জানাতে বলেছিলেন, তাকেও ফোন করে জলিল ভাইয়ের মৃত্যু সংবাদ জানিয়েছিলাম।

এর পর পরিচিত সব টিভি রিপোর্টারদের ফোন ও ম্যাসেজ দিলাম। এটিএন বাংলার জ ই মামুন, বৈশাখী টিভির রাহুল রাহা, এটিএন নিউজের প্রভাষ আমিন, মুন্নি সাহা, একুশে টিভির হারুন ভাই, আরটিভির আনোয়ার আহমেদ, গাজী টিভির ইকবাল করিম নিশান, চ্যানেল ২৪ এর তালাত মামুন, সময় টিভির তুষার আব্দুল্লাহ সবাইকেই কম বেশি জলিল ভাইয়ের মৃত্যু সংবাদ মুহূর্তের মধ্যেই দিলাম। তারাও রিং করে সঙ্গে সঙ্গে যাবতীয় ইনফরমেশন চাইলেন !

রিপোর্টাররা সবাই কম বেশি জলিল ভাইয়ের অসুস্থতার কথা জানতেন। তারপরও কেউ কেউ ইসরাফিল ভাইয়ের সিঙ্গাপুরের নাম্বার চাইলেন। আমি নাম্বার দিলাম।

চেক, ক্রস চেক করে নিলেন যে যার অবস্থান থেকে ! এর মধ্যেই একের পর এক চ্যানেলে জলিল ভাইয়ের মৃত্যু সংবাদ স্ক্রলে ব্রেকিং নিউজ দেয়া শুরু করলো।

সারা দেশে মুহূর্তের মধ্যেই তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লো। জলিল ভাইয়ের মৃত্যু সংবাদ সবাই কম বেশি টিভি চ্যানেলের মাধ্যমেই জানতে পারলো।

মন্ত্রী এমপিরা যার যার সোর্স থেকে টিভি চ্যানেলে ফোন করে মৃত্যু সংবাদ কনফার্ম হতে চাইলেন, চ্যানেল থেকে সবাই কম বেশি আমার কথা বললেন ! তোফায়েল ভাই, আমু ভাই চ্যানেল থেকে আমার নাম্বার নিয়ে আমায় ফোন দিয়ে রিকনফার্ম হলেন, ওবায়দুল কাদের ভাই, হানিফ ভাইও ফোন দিয়েছিলেন। ধানমন্ডি ৩ নাম্বার অফিস থেকেও ফোন দিয়ে বিস্তারিত জানতে চাইল।
লাশ কখন আসবে, নওগাঁয় কোথায়, কখন দাফন হবে সেটা সবাই জানতে চাইছিল !

মুহূর্তের মধ্যেই ভিআইপি বনে গেলাম ! জলিল ভাইয়ের মতো বড় মাপের একজন নেতার মৃত্যু সংবাদ আমার হাত দিয়ে দেশবাসী পাবে, এটা ছিল আমারও ধারনার বাইরে !

আজ ৬ মার্চ জলিল ভাইয়ের মৃত্যু বার্ষিকী ! আল্লাহ তার বেহেশত নসিব করুক, আমিন।

লেখক : সম্পাদক, প্রথম সময় ডটকম।

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow