Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ৫ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ জুন, ২০১৬ ২৩:২১
নির্বাচনী ব্যবস্থা এখন কফিনে
নিজস্ব প্রতিবেদক
নির্বাচনী ব্যবস্থা এখন কফিনে

আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসে একতরফা ইউপি নির্বাচন হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। গতকাল নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এ অভিযোগ করেন।

এ সময় তিনি ৬ষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচনের সার্বিক চিত্র তুলে ধরে বলেন, গণতন্ত্রের প্রধান শর্ত নির্বাচনী ব্যবস্থাকে কফিনে ঢুকিয়ে শেষ পেরেক মেরেছে নির্বাচন কমিশিন (ইসি)। ইসির পুরনো ঐতিহ্য পুনরুদ্ধারে বর্তমান কমিশনকে বিদায়ের কোনো বিকল্প নেই। সম্মেলনে দলের যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হারুন অর রশিদ, অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। রিজভী আহমেদ বলেন, ইউপি নির্বাচনের শেষ ধাপেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় আওয়ামী সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে নৌকা প্রতীকে সিল মেরেছে। বিএনপির এজেন্টদের বের করে দিয়ে ভোট কেন্দ্র দখল করা হয়েছে। বর্তমানে স্বাধীন সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান বলে কিছু নেই। সবই আওয়ামী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। নির্বাচন কমিশনারের অধীনে সব নির্বাচনে কারবালার মাতম উঠেছে। অসংখ্য মানুষের রক্তাক্ত লাশ দেখেও তারা বিচলিত হননি। বরং বারবার স্বাভাবিক ঘটনা বলে সহিংসতাকে উস্কে দিয়েছে। রিজভী বলেন, সরকার একদলীয় রাষ্ট্রব্যবস্থা কায়েমের উদ্দেশ্যে দলীয় প্রতীকে স্থানীয় সরকার নির্বাচন অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেয়। স্থানীয় সরকারে তাদের একতরফা নিজেদের লোক দরকার, তা না হলে একদলীয় ব্যবস্থা কায়েম করা সম্ভব নয়। আর এ জন্যই স্থানীয় নির্বাচনে এতো জবরদখল, পৈশাচিকতা, রক্তপাত, প্রাণহানি, ডাকাতি, চুরিসহ এক বীভৎস অরাজকতা সৃষ্টি করা হয়েছে।

up-arrow