Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৯ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৮ জুন, ২০১৬ ২৩:০০
প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়ন অসাধ্য
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়ন অসাধ্য

স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকী বলেছেন, প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়ন অসাধ্য।   তিনি অর্থমন্ত্রীকে প্রতি মাসেই সংসদে বাজেট বাস্তবায়নের অগ্রগতি রিপোর্ট পেশ এবং আগামীতে বাজেট প্রস্তুতিকালে সংসদের মতামত নেওয়ার অনুরোধ জানান।

জাতীয় সংসদে ২০১৬-১৭ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে গতকাল তাহজীব আলম সিদ্দিকী  (ঝিনাইদহ-২) এ অনুরোধ জানান। অর্থমন্ত্রীর বাজেটের কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন, বাজেট বণ্টনে আঞ্চলিক সাম্যের অভাব রয়েছে। কোথাও বড় বড় ব্রিজ হয়ে যাচ্ছে, আবার কোথাও যোগাযোগের একেবারে প্রান্তিক মাধ্যম সাঁকোও হচ্ছে না। কোথাও অপ্রয়োজনীয় রাস্তা বানানোর মহোৎসব চলছে, আবার কোথাও অতি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার সংস্কারেরও উদ্যোগ নেই। কোথাও বিশেষায়িত আধুনিক হাসপাতাল হচ্ছে, আবার কোথাও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে মৌলিক স্বাস্থ্যসেবার অধীনে আনা যাচ্ছে না। তাহজীব বলেন, অতীতে সমালোচকরা বাজেটকে উচ্চাভিলাষী বলে সমালোচনা করতেন। এখন অর্থমন্ত্রী নিজেই বাজেটকে উচ্চাভিলাষী বলে আখ্যায়িত করেন এবং সদম্ভে বলেন, বড় অভিলাষ থাকা কোনো অন্যায় নয়, বরং বড় অভিলাষ না থাকলে বড় অর্জন সম্ভব নয়। ওনার (অর্থমন্ত্রীর) কথার সঙ্গে অনেকাংশেই আমি একমত। তবে অর্থমন্ত্রী এবং তার টিমের অভিলাষ বা উচ্চাকাঙ্ক্ষার সঙ্গে উচ্চ প্রস্তুতি এবং কাঙ্ক্ষিত প্রেক্ষাপট ও কাঠামো আছে কি না—সে বিষয়ে আমার যথেষ্ট সন্দেহ এবং সংশয় আছে। তিনি বলেন, বাজেটের    ব্যয় প্রস্তাব দেখে বেশি আশঙ্কিত হতে হয়। কারণ এই ঘাটতি এবার সংস্থান করা হবে অভ্যন্তরীণ ব্যবস্থা থেকে।  এ যেন বাংলার প্রবাদ- ধার করে ঘি খাওয়ার মতো।  

এই পাতার আরো খবর
up-arrow