Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১১ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১০ জুন, ২০১৬ ২২:৪২
সব হত্যার বিচার দাবি হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের
নিজস্ব প্রতিবেদক

সংখ্যালঘু পুরোহিত ও এসপি বাবুলের স্ত্রীসহ সাম্প্রতিক সব হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করেছে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদ ও জাতীয় হিন্দু মহাজোট। একই সঙ্গে সাম্প্রদায়িক হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি করেছেন তারা। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনে দেশে সাম্প্রতিক সব হত্যার প্রতিবাদে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধনে তারা সব হত্যাকাণ্ডের দ্রুত বিচার দাবি করেন। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, দেশে টার্গেট কিলিংয়ের কারণে আজ কোনো মানুষ নিরাপদ নেই। কয়েক দিনের ব্যবধানে পুরোহিত নিত্যরঞ্জন পাণ্ডে, আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলী, সুনীল গমেজ ও মাহমুদা খানম মিতুকে হত্যা করা হলো। আগামী দিনে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকারকে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। পাশাপাশি একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র গড়তে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। মানববন্ধন থেকে অবিলম্বে হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়। সাম্প্রতিক নৃশংস হত্যাকাণ্ডে নিহতদের স্মরণে এবং মানবতা জাগরণে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে ২০ জুন বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করেছে সংগঠনটি। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জি, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, জয়ন্ত কুমার দেব, সন্তোষ শর্মা প্রমুখ। একই স্থানে পৃথক আরেক মানববন্ধনে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের নেতৃবৃন্দ বলেন, ঝিনাইদহে পুরোহিত গাঙ্গুলীকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। এর আগে নেত্রকোনায় অর্জুন বিশ্বাস, গোবিন্দগঞ্জে তরুণ দত্ত ও দেবেশ প্রামাণিক, পঞ্চগড়ে যজ্ঞেশ্বর দাস অধিকারী, গোপালগঞ্জে সাধু পরমানন্দ রায়কে হত্যা করা হয়েছে। খুনি চক্র চিহ্নিত না হওয়ায় একের পর এক হত্যাকাণ্ড চলছেই। বক্তারা বলেন, ইউপি নির্বাচন চলাকালে দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায় নির্যাতিত হয়েছে; যা অতীতের সব রেকর্ড ম্লান করেছে। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সংখ্যালঘু কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান এস এস গোস্বামী, হিন্দু মহাজোটের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট দীনবন্ধু রায়, প্রেসিডিয়াম মেম্বার কালীপদ মজুমদার, সিনিয়র সহ-সভাপতি ড. সোনালী দাস প্রমুখ।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow