Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১১ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ১০ জুন, ২০১৬ ২২:৪৬
বিএনপি জঙ্গিবাদকে ঘৃণা করে
নিজস্ব প্রতিবেদক
বিএনপি জঙ্গিবাদকে ঘৃণা করে

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র না থাকায় জঙ্গিবাদের উত্থান হচ্ছে। সরকার প্রতিটি হত্যাকাণ্ডের পর বিএনপিকে দোষারোপ করছে। কিন্তু বিএনপি জঙ্গিবাদকে ঘৃণা করে। তারা বিএনপিকে দোষারোপ করে নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে চায়। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবে বিশ্বসেরা মুষ্টিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী স্মরণে বিএনপি আয়োজিত এক শোক সভায় ব্যারিস্টার মওদুদ এ কথা বলেন। জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদকে জাতীয় সমস্যা আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, দেশে সহিংসতা এবং উগ্রবাদ ভয়াবহ আকার ধারণ করতে যাচ্ছে। কোনো হত্যাকাণ্ডের বিচার করতে পারেনি সরকার। প্রতিটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তারা বিএনপির নাম জড়িয়ে ‘ব্লেম গেম’ খেলেছে। এসব ‘ব্লেম গেম’ বন্ধ করুন। ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী জাতীয় ঐক্যের কথা বলেন। কিন্তু বিএনপিকে বাদ দিয়ে জাতীয় ঐক্য সম্ভব হবে?  প্রধানমন্ত্রী সত্যিকার অর্থে জাতীয় ঐক্যে বিশ্বাসী হলে— সব রাজনৈতিক দল, পেশাজীবী সংগঠন অর্থাৎ সব শ্রেণি-পেশার মানুষকে নিয়ে একটি ঐক্যমঞ্চ তথা প্ল্যাটফর্ম তৈরি করুন। আমরা বিশ্বাস করতে চাই— আপনারা (ক্ষমতাসীনরা) সত্যিকার অর্থে জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদের অবসান চান। তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে গণতন্ত্র  নেই। বিচার বিভাগ, প্রশাসন এবং নির্বাচন কমিশনের মতো প্রতিষ্ঠানগুলোর স্বাধীনতা নেই। যারা জঙ্গিবাদ-উগ্রবাদের চর্চা করে তারা সুযোগ নিচ্ছে। বিশ্বসেরা মুষ্টিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলীর স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, আজকে সেই মোহাম্মদ আলীর মৃত্যুতে বাংলাদেশ সরকার একটু কিছু বলল না। কী অসুবিধা হতো, যদি আজকে মোহাম্মদ আলী স্মরণে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকত? তার স্মরণে জাতীয় পর্যায়ে একটি অনুষ্ঠান করা যেত। স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য  লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান বলেন, সরকারের উচিত ছিল রাষ্ট্রীয়ভাবে মোহাম্মদ আলীর প্রতি শ্রদ্ধা জানানো। তাকে শ্রদ্ধা না জানানো বাংলাদেশের জন্য একটি লজ্জার বিষয়। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ক্রীড়া সম্পাদক কর্নেল (অব.) আবদুল লতিফ, বক্সার গিয়াস উদ্দিন, জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল হক প্রমুখ।




এই পাতার আরো খবর
up-arrow