Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ১২ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ জুন, ২০১৬ ২২:৫৬
সারা দেশে গ্রেফতার বাণিজ্য
নিজস্ব প্রতিবেদক
সারা দেশে গ্রেফতার বাণিজ্য

ঈদের বখশিশ হিসেবে সরকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সারা দেশে বিএনপির নেতা-কর্মীদের গ্রেফতারের দায়িত্ব দিয়ে গ্রেফতার বাণিজ্যের সুযোগ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। ।

গতকাল বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি। এ সময় দলের যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান  সরোয়ার, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হারুন অর রশিদ, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। রিজভী আহমেদ বলেন, বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষকে গ্রেফতারের ভয়ভীতি দেখিয়ে বড় অঙ্কের টাকা আদায় করার অভিযোগ উঠেছে। অবৈধ ভোটারবিহীন পুলিশ নির্ভর সরকার ঈদের আগে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বখশিশ হিসেবে গ্রেফতার বাণিজ্যের সুযোগ করে দিয়েছে। রিজভী বলেন, প্রধানমন্ত্রী নাকি ‘হেড অব দ্য গভর্নমেন্ট’ হিসেবে সব তথ্য পেয়ে থাকেন। তাই যদি হয়— তাহলে তার প্রেস কনফারেন্সের একদিন পরেই পাবনায় আশ্রমের সেবায়েত নিত্য রঞ্জন পান্ডেকে কী করে কুপিয়ে হত্যা করল দুর্বৃত্তরা? আসলে প্রধানমন্ত্রী প্রকৃত জঙ্গিবাদকে দমন করতে চান না। মূলত বিরোধী দল দমনই তাদের আসল উদ্দেশ্য। রিজভী আহমেদ বলেন, গুপ্তহত্যা ঠেকাতে যৌথ অভিযানের ঘোষণার শুরু থেকে সারা দেশে এখন পর্যন্ত প্রায় ১২ শতাধিক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জঙ্গিবিরোধী অভিযান বলা হলেও সারা দেশ থেকে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি উচ্চ আদালতে ৫৪ ধারা বিষয়ক যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে সেটিকেও উপেক্ষা করা হচ্ছে। এটি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর আদালতের প্রতি অবমাননা ও চরম ধৃষ্টতার শামিল।

up-arrow