Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২৪ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৪ জুন, ২০১৬ ০১:২৪
ছিনতাই চাঁদাবাজি রোধে গুলি
নিজস্ব প্রতিবেদক
ছিনতাই চাঁদাবাজি রোধে গুলি

আসন্ন ঈদুল ফিতর সামনে রেখে নগরবাসীর জানমালের নিরাপত্তায় চুরি, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, মলম কিংবা অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম্য ঠেকাতে প্রয়োজনে পুলিশ গুলি চালাবে। ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া এ কথা জানিয়ে বলেছেন, দুষ্কৃতকারীদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

গতকাল দুপুরে রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনালে আইনশৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনাবিষয়ক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। তিনি জানান, চুরি, ছিনতাই, চাঁদাবাজি এমনকি রাহাজানি প্রতিরোধে প্রয়োজনে পুলিশকে গুলি করতে বলা হয়েছে। ‘গুলির নির্দেশের’ বিষয়ে তিনি সভার পর সাংবাদিকদের বলেন, কিছুদিন আগেও ব্যাংকের সামনে পাহারা দিতে হতো। পুলিশ সতর্ক থাকায় এখন সেগুলো হচ্ছে না। তার পরও এ ধরনের টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটলে প্রয়োজনে পুলিশ গুলি চালাবে। জান ও মাল রক্ষার্থে পুলিশ প্রয়োজনে গুলি ছুড়তে পারবে বলে আইনেও বলা রয়েছে। পুলিশের সাম্প্রতিক প্রশ্নবিদ্ধ বন্দুকযুদ্ধ নিয়ে এক প্রশ্নে তিনি বলেন, পুলিশ কখনো ক্রসফায়ার করে না। তাদের (পুলিশ) কাজ আসামিদের ধরে আইনে সোপর্দ করা। তবে অপরাধী ধরতে গিয়ে পুলিশ আক্রান্ত হলে এনকাউন্টারে যেতে বাধ্য হয়। তখন দু-এক জন অপরাধীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে, অনেক সময় পুলিশ সদস্যরাও আহত হন। যানজট বিষয়ে জানতে চাইলে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ঢাকার ভিতরের বাস ডিপোগুলো বাইরে নেওয়া হলে যানজট অনেকাংশে কমে যাবে। উল্টোপথে গাড়ি চালানো ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া প্রসঙ্গে ডিএমপি কমিশনার বলেন, যে-ই হোক, যত বড় ক্ষমতাশালী হোক, ইনশা আল্লাহ আমাদের ট্রাফিক বিভাগ দেশের আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ শুরু করেছে এবং এটা অব্যাহত থাকবে। আমরা উল্টোপথে কোনো গাড়ি যেতে দেব না। কোনোভাবেই ট্রাফিক আইন ভঙ্গকারীদের ছাড় দেওয়া হবে না।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow