Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৭ জুন, ২০১৬ ২৩:২৯
সব ঘটনা উপেক্ষা করা সম্ভব নয়
-------মাহফুজউল্লাহ
নিজস্ব প্রতিবেদক
সব ঘটনা উপেক্ষা করা সম্ভব নয়

যেসব ঘটনা জনমন আকর্ষণ করে, তা উপেক্ষা করা বা এড়িয়ে চলা গণমাধ্যমের পক্ষে সম্ভব হয় না বলে মনে করেন সিনিয়র সাংবাদিক মাহফুজউল্লাহ। তিনি বলেন, গণমাধ্যম যদি এ ধরনের কাজ করে, তা হবে তার পাঠক বা দর্শকের প্রতি অনাস্থার বহিঃপ্রকাশ।

এটা মনে রাখা প্রয়োজন, গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হলে তা সমাজে বিশৃঙ্খলা তৈরি করে না, বরং যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে তাতে ঘটনা উন্মোচনে সহায়ক হয়। এই প্রেক্ষাপটে পুলিশ সুপার বাবুল আকতারের স্ত্রী মিতু হত্যার ঘটনাটি বিচার করলে তা বুঝতে সহায়ক হবে। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি। প্রশ্ন বলেন, ঢাকার বাসা থেকে বাবুল আক্তারকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়া এবং ১৪ ঘণ্টার বেশি সময় তাকে যোগাযোগ থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। পুলিশ তাকে কেন নিয়ে গিয়েছিল? পুলিশের সৎ উদ্দেশ্য থাকলে তারা খুব সহজে ঘটনাটি স্বীকার করতে পারত। একজন মানুষ, যার স্ত্রী খুন হয়েছেন, এবং যিনি নিজে দায়িত্বশীল সরকারি কর্মকর্তা, তাকে নিয়ে যখন পুলিশ ১৪-১৫ ঘণ্টা কথা বলে, তখন সংগত কারণেই প্রশ্ন দেখা দেয়। তিনি বলেন, মিডিয়ার বিরুদ্ধে অনেকেই বলছেন, মিডিয়া এ ঘটনাকে রংচং লাগিয়ে দায়িত্বহীন আচরণ করেছে। কিন্তু এটা মনে রাখা প্রয়োজন, মিডিয়া সব সময় কোনো ঘটনাকে নিয়ে পুরো গল্প বানায় না। মিডিয়ার কাছে যে তথ্য আসে তা বিভিন্ন উৎস থেকে। সম্প্রতি আমরা লক্ষ্য করছি, গুরুত্বপূর্ণ কাউকে গ্রেফতারের পর রিমান্ডে যা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় এবং যেসব তথ্য বেরিয়ে আসে, তা যখন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয় তখন বুঝতে হবে এটা কোনো উৎস থেকে এসেছে। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইন পোর্টালে অনেক কিছুই প্রকাশিত হচ্ছে। আবার অবস্থা বেগতিক দেখলে সেগুলো তুলে নেওয়া হচ্ছে। অথচ এই তুলে নেওয়ার জন্য কোনো ব্যাখ্যা দেওয়া হচ্ছে না। এর ব্যাখ্যা থাকা উচিত।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow