Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩০ জুন, ২০১৬ ২৩:৪৩
ইস্তাম্বুলে বোমা
হামলাকারীদের খোঁজে তুর্কি পুলিশ, পাওয়া গেছে পরিচয়
প্রতিদিন ডেস্ক

তুরস্কের রাজধানী ইস্তাম্বুলের প্রধান বিমানবন্দরে গত মঙ্গলবার বোমা হামলা চালানো তিন আইএস সদস্য রাশিয়া, উজবেকিস্তান এবং কিরগিজস্তানের নাগরিক বলে এক তুর্কি সরকারি কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা হামলাকারীদের জাতীয়তা নিশ্চিত করা ছাড়া আর বিস্তারিত কিছু জানাননি। তবে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বোমা হামলাকারীদের পরিচয় শনাক্ত করার জন্য তদন্তকারীরা জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে সরকারপন্থি ইয়েনি সাফাক পত্রিকা বলেছে, রাশিয়ার বোমা হামলাকারী আসে চেচনিয়া সীমান্তবর্তী দাগেস্তান থেকে। এ ছাড়া কিরগিজস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী, কিরগিজ নাগরিকের হামলায় জড়িত থাকার ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। অন্যদিকে উজবেক নাগরিকের ব্যাপারে মন্তব্যের জন্য উজবেকিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তাত্ক্ষণিকভাবে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। ইয়েনি সাফাক পত্রিকা বলেছে, হামলার সংগঠক চেচেন বংশোদ্ভূত ব্যক্তি। তার নাম আকমেদ চাতায়েভ বলে ধারণা করা হচ্ছে। জাতিসংঘ নিষেধাজ্ঞার তালিকায় রুশ-ভাষী জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়ায় নিয়োজিত একজন আইএস নেতা হিসেবে চাতায়েভের নাম আছে। রাশিয়া কর্তৃপক্ষ তাকে খুঁজছে। ওদিকে হুরিয়াত পত্রিকা একজন হামলাকারীর নাম ওসমান ভাদিনভ বলে উল্লেখ করেছে। এ ব্যক্তিও একজন চেচেন। তিনি এসেছেন সিরিয়ার আইএস নিয়ন্ত্রিত শহর রাক্কা থেকে। উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাতে ওই হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তুরস্কের পুলিশ ইস্তাম্বুল জুড়ে তল্লাশি চালিয়ে ১৩ জনকে আটক করেছে। এদের মধ্যে তিনজন বিদেশি রয়েছেন। পুলিশের বিশেষ বাহিনীর নেতৃত্বাধীন সন্ত্রাসবিরোধী একটি টিম শহরটির ১৬টি জায়গায় অবিরাম তল্লাশি চালিয়েছে। তুরস্ক কর্তৃপক্ষ  বিমানবন্দরে হামলার পেছনে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) হাত আছে বলে ধারণা করছে। তুরস্কে ইউরোপের তৃতীয় বৃহত্তম বিমানবন্দরটিতে এ বছর এটিই সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা। তিন বোমারু প্রথমে বাইরে আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য গুলি চালায়। এরপর তাদের দুজন ভিতরের টার্মিনাল ভবনে গিয়ে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ঘটনায়। তৃতীয়জন নিজেকে উড়িয়ে দেয় প্রবেশপথে। হামলায় ৪১ জন নিহত হওয়া ছাড়াও ২৩৯ জন আহত হন।

up-arrow