Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩০ জুন, ২০১৬ ২৩:৪৫
ঢাকায় সোহেল তাজ ব্যক্তিগত কর্মসূচিতে অংশ নেবেন
শেখ সফিউদ্দিন জিন্নাহ্
ঢাকায় সোহেল তাজ ব্যক্তিগত কর্মসূচিতে অংশ নেবেন

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজ এখন ঢাকায়। ২৪ জুন তিনি যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঢাকায় এসে বনানীতে বড় বোন সিমিন হোসেন রিমি এমপির বাসায় ওঠেন। সোহেল তাজের ঘনিষ্ঠজনেরা জানান, আপাতত তিনি কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছেন না। সময় কাটাবেন পরিবার-পরিজনের সঙ্গে। পবিত্র ঈদুল ফিতর দেশেই পালন করবেন। ১০ জুলাই তার নির্বাচনী এলাকা গাজীপুরের কাপাসিয়ায় তার পিতা শহীদ বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমদের জন্মবার্ষিকীর এক অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা। কাপাসিয়া উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মাহবুব উদ্দিন আহমেদ সেলিম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, তাজউদ্দীন আহমদের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে অনুষ্ঠানের জোর প্রস্তুতি চলছে। সোহেল তাজ এর আগে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেছেন, ‘আমি তাজউদ্দীন আহমদ ও সৈয়দা জোহরা তাজের সন্তান। আমি বঙ্গবন্ধু, বঙ্গতাজ ও মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে বড় হয়েছি। মুক্তিযুদ্ধের রক্ত আমার সঙ্গে মিশে আছে। আর বঙ্গবন্ধু-বঙ্গতাজের আদর্শ আমার সর্বাঙ্গে মিশে আছে। ’ তিনি বলেন, ‘আমি তো রেগুলারই দেশে আসছি। এমন তো নয় আমি দেশে আসছি না। তো এখানে থাকা না থাকার কোনো প্রশ্নই ওঠে না। ’ বর্তমান সরকার ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পর সোহেল তাজ স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন। তার নির্বাচনী এলাকা গাজীপুরের কাপাসিয়া আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, সোহেল তাজ অপ্রকাশিত ক্ষোভ নিয়ে অভিমান করে ২০০৯ সালের ৩১ মে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন যমুনায় গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী তাকে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন ও নতুন উদ্যমে দায়িত্ব পালন করার পরামর্শ দেন। প্রধানমন্ত্রী চাননি সোহেল তাজ পদত্যাগ করেন। মন্ত্রিপরিষদের আরেক প্রভাবশালী সদস্য জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফ ব্যক্তিগতভাবে কয়েক দফা সোহেল তাজের মত পাল্টানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে সোহেল তাজ পদত্যাগপত্র জমা না দিয়েই যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। পরে ২০১২ সালের ৭ জুলাই এমপিপদ ত্যাগ করলে স্পিকার গাজীপুর-৪ আসনটি শূন্য ঘোষণা করেন। পরে এ আসনে অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে এমপি হন তার বড় বোন সিমিন হোসেন রিমি। কাপাসিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আজগর রশিদ খান বলেন, ‘সোহেল তাজ দেশে আসায় আমরা কাপাসিয়াবাসী তথা গাজীপুর আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা যেমন উত্ফুল্ল ও খুশি, তেমন সাধারণ মানুষ যারা সোহেল তাজকে মনেপ্রাণে ভালোবাসেন তারাও খুশি। ’ গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লা খান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘আমরা আশা করি সোহেল তাজ আবার নতুন উদ্যমে রাজনীতিতে সক্রিয় হবেন। তিনি গাজীপুর জেলা জুড়ে জনপ্রিয় নেতা। তিনি নিজেকে রাজনীতি থেকে গুটিয়ে রাখবেন এটা ঠিক নয়। ’

up-arrow