Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৪৭
সন্তানদের না পেয়ে শাশুড়িসহ দুজনকে হত্যা পুরান ঢাকায়
নিজস্ব প্রতিবেদক

সন্তানদের না পেয়ে পুরান ঢাকায় শাশুড়িসহ দুজনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহতরা হলেন বেগম (৫০) ও তার নাতনি বন্যা (২০)।

এ ঘটনায় নিহত বেগমের মেয়ে সীমা আক্তারও গুরুতর জখম হয়েছেন। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল বিকালে ছাতা মসজিদ গলির পাশে ইসাহাকের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। স্বজনরা বলছে, বন্যার খালু জীবন এ ঘটনা ঘটিয়েছে। নিহত বন্যার স্বামী সোহাগ বলেন, তিনি স্থানীয় একটি দোকানে কাজ করেন। খবর পেয়ে বাসায় ফিরে রক্তাক্ত অবস্থায় তিনজনকে দেখতে পান। এদের মধ্যে বেগম ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে সীমা ও বন্যাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোয়া ৪টার দিকে বন্যা মারা যায়। সীমার অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। সোহাগ বলেন, এক বছর আগে বেগমের আরেক মেয়ে সুমি মারা যায়। এরপর থেকে সুমির ৯ বছর বয়সী মেয়ে জুঁই ও প্রায় এক বছর বয়সী ছেলে সানি নানীর কাছে থাকত। জুঁই ও সানির বাবা জীবন তাদের তার কাছে নিয়ে যেতে চাইত। কিন্তু বেগম তাদের দিতে চাইতেন না। এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ঝামেলা চলছিল। এরই জের ধরে জীবন এদের ওপর হামলা করে তার ছেলে-মেয়েকে নিয়ে যান। পুলিশের লালবাগ বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার বলেন, ঘরে ঢুকে তিনজনের ওপর হামলা চালানো হয়। এতে দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। বেগমের মেয়ে সুমির স্বামী জীবন এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানতে পেরেছি। ঘটনার সময় জীবন তার দুই সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে গেলেও পরে তাদের রেখে যায়। জীবনকে ধরতে অভিযান চলছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow