Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৫১
নিহত জঙ্গি খায়রুলের বাবা মা আটক
নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

রাজধানীর গুলশানে আর্টিজান বেকারিতে সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানে নিহত ছয় জঙ্গির মধ্যে বাঁধন ওরফে খায়রুল আলম পায়েলের বাড়ি বগুড়ার শাজাহানপুরের বৃকুষ্টিয়া গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের আবু হোসেনের ছেলে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও পত্রপত্রিকায় ছবি প্রকাশের পর গ্রামের লোকজন তাকে চিনতে পারেন। এরপর চারদিকে হৈচৈ পড়ে যায়। খবর পেয়ে বগুড়া জেলা পুলিশ রবিবার বিকালে বাঁধনের বাবা ও মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদে খায়রুলকে তারা শনাক্ত করেন। জানা যায়, প্রায় ৯ মাস আগে খায়রুল আলম পায়েল বাবার গরু বিক্রি করা ৬০ হাজার টাকা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। এর পর থেকে তার কোনো খোঁজ পায়নি পরিবার। মাঝেমধ্যে তিনি মায়ের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলতেন। খায়রুল শাজাহানপুর উপজেলার বিহিগ্রাম এডিইউ সেন্টার ফাজিল মাদ্রাসায় আলিম পর্যন্ত লেখাপড়া করেন। গ্রামের লোকজন জানান, তার আচার-আচরণ ছিল একটু ভিন্ন ধরনের। ঘরের টিনের চালে বড় বড় অক্ষরে খায়রুল লিখে রাখতেন—‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মোহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ’। এলাকার মানুষ জানান, তাকে চেনার উপায় হলো তার এক হাতে ছয়টা আঙুল আছে।

বগুড়ার পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান জানান, গুলশানে কমান্ডো অভিযানে নিহত ছয় জঙ্গির মধ্যে একজনের বাড়ি বগুড়ার শাজাহানপুরের বৃকুষ্টিয়া গ্রামের। তার নাম খায়রুল আলম পায়েল। তার বাবা আবুল হোসেন ও মা পিয়ারা বেগমকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা খায়রুলকে শনাক্ত করেছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow