Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৫৪
বাংলাদেশ ভালো থাকলে আমরা ভালো থাকি
কলকাতা প্রতিনিধি
বাংলাদেশ ভালো থাকলে আমরা ভালো থাকি

বাংলাদেশ যদি ভালো থাকে তবে আমরাও ভালো থাকি। আর ওরা যদি দুঃখে থাকে তবে আমরাও দুঃখ পাই। ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারি রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনায় এভাবেই সমবেদনা জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার বিধানসভার বাজেট অধিবেশনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘জঙ্গি হামলার রাতে বাংলাদেশে কী হচ্ছিল আমি  সবসময় সেই ঘটনার দিকে নজর রেখেছিলাম। ওরা যদি ভালো থাকে তবে আমরাও ভালো থাকি, আর ওরা যদি দুঃখে থাকে তবে আমরাও দুঃখ পাই। কারণ পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ উভয়ই এক সাংস্কৃতিক ও মানবিকতার সুতোয় বাঁধা’।

ওই হামলার নিন্দা জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এসব ঘটনা আমরা সমর্থন করি না। আমরা এই জঙ্গি হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। আমরা তাদের ব্যথা ও মৃত্যুযন্ত্রণা উপভোগ করছি এবং এই দুঃখের সময়ে আমরা তাদের পাশে আছি। ’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা অন্য দেশের বিষয়ে মন্তব্য করতে চাই না এবং অন্য দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়েও আমরা হস্তক্ষেপ করতে চাই না। আমাদের প্রশাসন সীমান্তবর্তী জেলাগুলোকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে। ভারত-বাংলাদেশ অরক্ষিত আন্তর্জাতিক সীমান্তেও নজর রাখা হচ্ছে’। সীমান্তে অপরিচিত ব্যক্তিদের দেখা মাত্রই পুলিশের কাছে বিষয়টি জানানোর জন্যও রাজ্যের মানুষের কাছে আর্জি জানিয়েছেন মমতা। পাশাপাশি বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর হামলা বন্ধ না হলে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষে কয়েকদিন আগে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে চলাচলকারী মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেন বন্ধ করার যে দাবি জানিয়েছিলেন তারও সমালোচনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। দিলীপ ঘোষের উদ্দেশে মমতা বলেন, ‘মৈত্রী এক্সপ্রেস বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি ঠিক হয়নি। এই ধরনের সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় সরকারই নিতে পারে, কোনো রাজনৈতিক দল নয়। তাছাড়া মৈত্রী এক্সপ্রেসের সঙ্গে জঙ্গিদের কোনো সম্পর্ক নেই। দুই দেশের সম্পর্ক খারাপ হতে পারে সেই ধরনের মন্তব্য আমাদের করা উচিত নয়। আমাদের মনে রাখা উচিত যে, সন্ত্রাসের কোনো ধর্ম হয় না। ’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow