Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : বুধবার, ১৩ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১২ জুলাই, ২০১৬ ২৩:১৭
নর্থ সাউথ নিয়ে সরকার সচেতন : নাহিদ
নিজস্ব প্রতিবেদক
নর্থ সাউথ নিয়ে সরকার সচেতন : নাহিদ

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা খতিয়ে দেখতে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষকদের ওপর নজরদারি বাড়ানো হবে। সব বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জঙ্গিবাদ ইস্যুতে সচেতন থাকতে হবে। কার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা জঙ্গিবাদে জড়াচ্ছে কর্তৃপক্ষের সেটা নজরদারি করতে হবে। গতকাল সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ঢাকার নামি বেসরকারি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে সরকার সচেতন রয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না, তাদের জঙ্গি কর্মকাণ্ডে সংশ্লিষ্ট হতে দেখা যাচ্ছে। যারা আর্থিকভাবে সচ্ছল পরিবারের, মেধাবী, অনেক বেশি স্মার্ট ও সম্ভ্রান্ত- তাদের মধ্যে এ প্রবণতা বেশি দেখা যাচ্ছে। নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়ে এর আগেও এ ধরনের অভিযোগ ছিল। এই ইউনিভার্সিটি নিয়ে সচেতন আছি, আগেও তাদের সঙ্গে বহু বৈঠক করেছি। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আজকের ঘটনা যেমন সবাইকে নাড়া দিয়েছে তখন কিন্তু নাড়া দেয়নি, বিচ্ছিন্ন ঘটনা হিসেবে মনে করা হয়েছে। আমাদের নজরে নেই বা আলাপ করিনি সে রকম না। একজন শিক্ষককে সেখান থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ওই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অনুমতি না নিয়ে এক সেমিস্টার কোনো শিক্ষার্থী অনুপস্থিত থাকলে তার ছাত্রত্ব বাতিল হবে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাদের এই পদক্ষেপ যথেষ্ট নয়। এটা অনেকটা পাশ কাটিয়ে যাওয়ার মতো। তাদের এ সিদ্ধান্ত লোক দেখানো। একটি সেমিস্টার হতে চার মাস লাগে, আসলে ৬ মাসের কমে কোনো সেমিস্টার হয় না। তারা (বিশ্ববিদ্যালয়) বলছে- এক সেমিস্টার পরীক্ষা না দিলে ছাত্রত্ব বাতিল হবে। এটা একাডেমিক সিদ্ধান্ত হতে পারে। ঠিকমতো পড়ালেখা করছে না এ জন্য তাকে বহিষ্কার করা হলো। কিন্তু যেখানে তারাও বলছে (সন্ত্রাসী হামলায়) তাদের ছাত্র রয়েছে, সেখানে এ পদক্ষেপ মোটেই সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই- শুধু শিক্ষার্থী নয়, শিক্ষকরাও এখন থেকে নজরদারিতে থাকবেন। আগে জঙ্গিবাদ যেভাবে ছিল সেভাবে মোকাবিলা করেছি, এখন পরিস্থিতি ভিন্ন তাই ভিন্নভাবে মোকাবিলা করছি। জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় সবচেয়ে বড় দায়িত্ব নিতে হবে পরিবারের সদস্যদের, সামাজিকভাবেও সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

এই পাতার আরো খবর
up-arrow