Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৫ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৫২
ভারত ফিরছেন না জাকির নায়েক
প্রতিদিন ডেস্ক

গ্রেফতার হতে পারেন, অথবা হতে পারেন কঠোর তদন্তের মুখোমুখি, এ ছাড়া রয়েছে প্রাণবধের হুমকি। এসব কারণে ধর্ম প্রচারক ডা. জাকির নায়েক ভারতে ফিরে যাচ্ছেন না। তিনি এখন সৌদি আরবে রয়েছেন। সেখান থেকে গতকাল স্কাইপের মাধ্যমে মুম্বাইতে ভারতীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন। গুলশানে যারা জঙ্গি হামলা করেছে সেই সন্ত্রাসীরা তার ভাষণেই অনুপ্রাণিত হয়েছিল বলে যে অভিযোগ উঠেছে তা খারিজ করে দিয়ে তিনি বলেন, কোনোভাবেই তিনি ওদের অনুপ্রাণিত করেননি। জাকির বলেন, ‘আমার ভাষণের ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে। জ্ঞানত আমি কোনো সন্ত্রাসবাদীর সঙ্গে মিলিত হইনি। কিন্তু যদি কিছু মানুষ আমার পিছনে দাঁড়িয়ে ছবি তোলেন, আমি হাসি। কিন্তু আমি বলতে পারব তারা কে? আমি শান্তির দূত। আমি ইসলামের কোনো শাখার সমালোচনা করি না। আমার অভিমত হয়তো আলাদা হতে পারে। ’ এ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে কার্যত ক্ষোভ উগরে দিয়ে জাকির বলেন ‘ঢাকায় জঙ্গি হামলার পর বাংলাদেশের ’ডেইলি স্টার’ নামে একটি পত্রিকার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয় হামলাকারীদের একজন আমার ভাষণে উদ্বুদ্ধ হয়েছিল। ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোও সেই খবর প্রকাশ করে। কয়েকদিন পরেই পত্রিকাগুলো তাদের ভুল স্বীকার করে। সেখানে বলা হয় তারা কখনোই বলেনি যে হামলাকারীরা জাকিরের ভাষণে অনুপ্রাণিত হয়েছিল এবং নিরপরাধ মানুষকে হত্যা করার বিষয়ে উৎসাহ জুগিয়েছিল’।

জাকির নায়েক বলেন, ‘যারা কোনো অন্যায় করেননি, তাদের খুন করা হারামের শামিল। নিরপরাধীদের হত্যায় ইসলাম কখনো বিশ্বাস করে না। শুধু তাই নয়, গোটা বিশ্বজুড়ে যেভাবে জঙ্গিরা একের পর এক হামলা চালাচ্ছে তারও কড়া ভাষায় নিন্দা করেন জাকির। শুক্রবার ফ্রান্সের নিস শহরে যে জঙ্গি হামলা ঘটেছে তারও নিন্দা করেছেন তিনি।

ভারতীয় পত্র-পত্রিকায় খবর : ১ জুলাই ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার পরই মুম্বাইয়ের ইসলাম ধর্মপ্রচারক জাকির নায়েকের নাম উঠে আসে। বাংলাদেশের তদন্তকারীরাও জানান হামলাকারী ২ জঙ্গি জাকির নায়েকের ভাষণেই অনুপ্রাণিত হয়েছিল। গুলশান ঘটনার পরপরই বাংলাদেশ সরকার পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়। হাসিনা সরকারের অনুরোধেই জাকিরের ভাষণ নিয়ে তদন্ত শুরু করে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ও মহারাষ্ট্র সরকার।

হত্যার জন্য পুরস্কার ঘোষণা : এদিকে জাকির নায়েককে হত্যা করলে হত্যাকারীকে ৫০ লাখ রুপি পুরস্কার দেওয়া হবে বলে বৃহস্পতিবার ঘোষণা দিয়েছেন বিজেপি নেত্রী স্বাধী প্রাচী। তিনি বলেছেন, জাকির ইসলাম ধর্মের প্রচারক নন। তিনি একজন সন্ত্রাসী। তাই বিজেপি নেত্রী হিসাবে নয়, ব্যক্তিগত উদ্যোগেই তিনি এ পুরস্কার ঘোষণা করলেন। তার আগে গত মঙ্গলবার শিয়া মুসলিম সম্প্রদায়ের সংগঠন ‘হুসেইনস টাইগার্স’-এর প্রধান সৈয়দ হুসেইন কলবি ঘোষণা করেন, যে ব্যক্তি জাকির নায়েকের শিরশ্ছেদ করবে তাকে ১৫ লাখ রুপি পুরস্কার দেওয়া হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow