Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ জুলাই, ২০১৬ ২৩:১৪
লন্ডনে বৈঠকে দুই দলের নেতারা, বের করে দেওয়া হলো জামায়াত নেতাকে
নিজস্ব প্রতিবেদক ও লন্ডন প্রতিনিধি

উগ্রবাদ-সন্ত্রাসবাদসহ বাংলাদেশের চলমান ইস্যু নিয়ে যুক্তরাজ্যের ‘হাউস অব কমন্সে’ আওয়ামী লীগ-বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের সেমিনারে বিনা নিমন্ত্রণে উপস্থিত হয়েছিলেন জামায়াতের এক নেতা। পরে তাকে বের করে দেওয়া হয়।

গতকাল বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় লন্ডনে হাউস অব কমন্সে এ সেমিনার শুরু হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ব্রিটিশ এমপি আন মেইন। অসুস্থতার কারণে লন্ডন সফরে থাকলেও এই বৈঠকে যোগ দিতে পারেননি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।      আওয়ামী লীগের পক্ষে সেমিনারে নেতৃত্ব দেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম। অন্যদিকে মির্জা ফখরুলের অনুপস্থিতিতে দলের নেতৃত্ব দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন ও আইনের শাসন’ শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজন করেন লর্ড কার্লিসল নামে এক ব্রিটিশ এমপি। এতে প্রধান বক্তা ছিলেন সিমন ডানসিক। সেমিনারে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ উত্থানের পেছনে বিএনপি-জামায়াত জড়িত। বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় থাকার সময় বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের উত্থান হয়। জামায়াত একটি জঙ্গিবাদী সংগঠন। সেমিনারে বিনা নিমন্ত্রণে অংশ নেওয়া জামায়াতের ইউরোপ শাখার কনভেনার আবু বকর মোল্লা নানা যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন। এ সময় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বলা হয়, সেমিনারে জামায়াত এলো কীভাবে। তারা কি আমন্ত্রিত? এ সময় সেমিনারের সভাপতি ব্রিটিশ এমপি আন মেইন তাকে বের করে দেন। পরে সেমিনার শুরু হলে বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়, আজকে দেশে গণতন্ত্রহীনতার জন্য দায়ী আওয়ামী লীগ। জঙ্গিবাদের জন্য আওয়ামী লীগকেই দায়ী করা হয়। সেমিনারে বিএনপির পক্ষ থেকে বেশ কিছু তথ্য-প্রমাণ উপস্থাপন করা হয়। পরে সভাপতি আন মেইন তার বক্তব্যে গুলশানে জঙ্গি হামলাসহ বাংলাদেশের চলমান অস্থিতিশীল রাজনীতিতে দলমতনির্বিশেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। সেমিনারে আওয়ামী লীগের অন্য নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থবিষয়ক উপদেষ্টা মশিউর রহমান, ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, মত্স্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণচন্দ্র চন্দ এবং জাতীয় পার্টি নেতা ও পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। অন্যদিকে বিএনপির পক্ষে আমীর খসরু মাহমুদ ছাড়াও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন আহমেদ, সহ-আইনবিষয়ক সম্পাদক নিতাই রায় চৌধুরী ও ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে লন্ডন সফরে গেলেও অসুস্থতার কারণে সেমিনারে যোগ দিতে পারেননি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সোমবার প্রায় তিন ঘণ্টা হাসপাতালে থাকার পর তিনি এখন হোটেলেই অবস্থান করছেন। সেখানে তার সঙ্গে সার্বিক যোগাযোগ রাখছেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াও ফোনে মহাসচিবের সঙ্গে কথা বলে শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন। সোমবার রাতে হাউস অব কমন্সে ব্রিটিশ দুই এমপির সঙ্গে বৈঠকের পর কমনওয়েলথ মহাসচিবের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য যাওয়ার পথে অসুস্থ হয়ে পড়েন মির্জা ফখরুল। পরে তাকে সেন্ট থমাস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ছুটে যান তারেক রহমান। এ ছাড়া যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা মুয়িদুর রহমান, এম এ মালেক, মুশফিকুল ফজল আনসারীসহ অন্য নেতারাও মির্জা ফখরুলের খোঁজখবর নেন।

up-arrow