Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২১ জুলাই, ২০১৬ ২৩:২২
তারেকের সাজা হয়েছে খালেদারও বিচার হবে
-----------ক্যাপ্টেন তাজ
নিজস্ব প্রতিবেদক
তারেকের সাজা হয়েছে খালেদারও বিচার হবে

আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী ক্যাপ্টেন এ বি তাজুল ইসলাম (অব.) বলেছেন, অর্থ পাচার মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাজা হয়েছে। তার মা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ারও বিচার হবে।

কেউ তাকে আইনের হাত থেকে রক্ষা করতে পারবে না। কারণ তিনি এতিমের টাকা মেরে খেয়েছেন, কালো টাকা সাদা করেছেন। এখন দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। গতকাল দুপুরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিখা চিরন্তনে এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, গুপ্তহত্যার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ, শপথ ও বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় কমিটি। সমাবেশে বক্তৃতা শেষে দেশ ও সরকারের বিরুদ্ধে যে কোনো ষড়যন্ত্র রুখতে মুক্তিযোদ্ধারা শপথ গ্রহণ করেন। তাজুল ইসলাম এ শপথবাক্য পাঠ করান। সংগঠনের সভাপতি মো. হারুন-অর রশিদের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন মহাসচিব সফিকুল বাহার মজুমদার টিপু, আলহাজ শরিফ উদ্দিন, আনোয়ার হোসেন পাহাড়ী বীরপ্রতীক, মোশাররফ হোসেন, আবুল খায়ের, মমিনুল হক, হুমায়ুন কবির, অরুণ সরকার রানা, হারুনুর রশিদ জিল্লুর, বাহার উদ্দিন রেজা বীরপ্রতীক, নজরুল ইসলাম প্রমুখ। সমাবেশ শেষে একটি বিশাল মিছিল বের করা হয়। ক্যাপ্টেন তাজুল ইসলাম বলেন, জঙ্গিবাদ আজকে বৈশ্বিক সমস্যা। শুধু বাংলাদেশেই নয়, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এ সমস্যা দেখা দিয়েছে। বিগত দিনে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় দেশে জঙ্গিবাদের সৃষ্টি হয়। তারা রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে জঙ্গিদের লালন-পালন করেছে। এখন জামায়াত ও খালেদার মদদেই দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে গুলশান ও শোলাকিয়ায় হামলা করেছে।

মুক্তিযোদ্ধারা যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত জানিয়ে তিনি আরও বলেন, আজকে আওয়ামী লীগ সরকার তথা শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরানোর জন্য নানা চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র চলছে। দেশে একজন মুক্তিযোদ্ধা জীবিত থাকা অবস্থায় কেউ শেখ হাসিনার ক্ষতি করতে পারবে না। প্রয়োজনে মুক্তিযোদ্ধারা জীবন দিতে প্রস্তুত আছে।

খালেদা জিয়ার জাতীয় ঐক্যের ডাকের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, আপনি বলছেন, আপনার সঙ্গে ঐক্য করলে সমাধান হবে, আর না করলে সমস্যা বাড়বে— এমন বক্তব্যে আপনি কী বোঝাতে চাচ্ছেন? জনগণের কাছে পরিষ্কার এই ঘটনায় আপনার মদদ রয়েছে। আপনি প্রচ্ছন্নভাবে সহযোগিতা করছেন। আপনার ষড়যন্ত্র সফল হবে না। দেশের ১৬ কোটি মানুষ জননেত্রী শেখ হাসিনার পাশে আছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow