Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০৫
তৃণমূলের যুদ্ধাপরাধীদেরও বিচার করতে হবে
নিজস্ব প্রতিবেদক
তৃণমূলের যুদ্ধাপরাধীদেরও বিচার করতে হবে

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ড. তুরিন আফরোজ বলেছেন, শুধু শীর্ষস্থানীয় যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করলেই হবে না, তৃণমূল পর্যায়ের যুদ্ধাপরাধীদেরও বিচার করতে হবে। অর্থাৎ এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া।

বিচার চলমান থাকবে। এই বিচার একে একে সম্পন্ন করতে হবে। এটি আজ জাতীয় দাবি। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনকে টেলিফোনে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে    তিনি এসব কথা বলেন। তুরিন আফরোজ বলেন, মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার নিজস্ব গতিতেই চলছে। আজ পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মামলার নিষ্পত্তি হয়েছে। রায় কার্যকর হয়েছে। আরও কিছু মামলার আপিল নিষ্পত্তির অপেক্ষায় রয়েছে। তিনি বলেন, এখন ভাবার সময় এসেছে, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের পাঠ পাঠ্যপুস্তকে আনা যায় কিনা, যুদ্ধাপরাধীদের পরিবার ও তাদের পরবর্তী প্রজন্মের ওপরে নজরদারি করা যায় কিনা। তিনি আরও বলেন, এই বিচার ও রায় নিয়ে আমাদের আত্মতৃপ্তিতে ভোগার কোনো অবকাশ নেই। মুক্তিযুদ্ধের সশস্ত্র যুদ্ধে আমরা জয়ী হয়েছি। সশস্ত্র যুদ্ধ শেষ হয়েছে। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রতিষ্ঠার লড়াই শেষ হয়নি। এই লড়াই চালিয়ে যেতে হয় প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম পর্যন্ত। তাই আত্মতৃপ্তিতে ভুগে আমরা থেমে গেলে যুদ্ধাপরাধীরা ও তাদের প্রজন্ম আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে। এ কারণে আমাদের সজাগ থাকতে হবে। প্রসিকিউটর তুরিন বলেন, এখনো যেসব মামলার বিচার চলছে, আমরা আশা করি সেগুলোতেও কাঙ্ক্ষিত রায় পাব এবং তা কার্যকর করা হবে। তিনি বলেন, মীর কাসেম আলীসহ অন্য যুদ্ধাপরাধীদের রায় কার্যকরের বিষয়ে বলতে চাই, যতই বাধা আসুক বিচার চলবে। এ বিচার ঠেকিয়ে রাখা যায়নি, যাবেও না। সত্য একদিন প্রকাশিত হবেই। এসব মামলার বিচারের মাধ্যমে এটাই আজ প্রমাণিত হয়েছে।

up-arrow