Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • চাটাইয়ে মুড়িয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান!
  • কেরানীগঞ্জে বাচ্চু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, ৭ জনের যাবজ্জীবন
  • ৩ মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে খালেদার আবেদন
  • হালদা নদীর পাড়ের অবৈধ স্থাপনা ভাঙার নির্দেশ
  • আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা
  • কাদেরের বক্তব্যে একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী
  • কলারোয়া সীমান্তে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
  • বিএনপি নির্বাচনে না এলেও গণতন্ত্র অব্যাহত থাকবে: কাদের
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৪৬
গুম খুনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে
নিজস্ব প্রতিবেদক
গুম খুনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে
ড. কামাল হোসেন

দুর্নীতি ও গুম-খুনের বিরুদ্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া নামে একটি সংগঠনের ব্যানারে ‘দুর্নীতি জাতীয় অগ্রগতির প্রধান অন্তরায় শীর্ষক’ আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। গুম, অপহরণ, হত্যার ভয় দেখিয়ে মানুষকে দমিয়ে রাখা  যাবে না উল্লেখ করে ড. কামাল বলেন, এ ব্যাপারে জনগণকেই এগিয়ে আসতে হবে। চুপচাপ বসে থাকলে এর সমাধান হবে না। গুম, হত্যার বিকল্প জনগণের ঐক্য, ঐক্য এবং ঐক্য। ড. কামাল হোসেন তরুণ প্রজন্মকে আশ্বস্ত করে বলেন, দেশে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ অপেক্ষা করছে। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ, নাগরিক পরিষদের আহ্বায়ক শামছুদ্দিন আহমেদ, অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন  মোস্তফা নুরুল ইসলাম।

সংবিধানে সুস্পষ্ট উল্লেখ আছে স্বাধীন দেশের নাগরিকরা হলো প্রজাতন্ত্রের মালিক জানিয়ে ড. কামাল হোসেন বলেন, বর্তমানে দুর্নীতির বিরুদ্ধে দেশের সব নাগরিককে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। কেননা জনগণই হচ্ছে এ দেশের মালিক। তিনি বলেন, মালিক যদি মালিকের ভূমিকা না রাখেন স্বাভাবিকভাবে বাড়িটি ভেঙে পড়তে পারে, হয়তোবা কেউ দখলও করতে পারে। বর্তমান শাসনব্যবস্থার মধ্যে অনেক গলদ আছে জানিয়ে গণফোরাম সভাপতি বলেন, আমরা এ রোগ থেকে মুক্ত হতে পারিনি। আইনের শাসনের মধ্য দিয়ে ব্যক্তির জবাবদিহিতা করতে হবে। নিরপেক্ষতা ও জনমতের মাধ্যমে দুর্নীতির বিরুদ্ধে স্বোচ্চার হতে হবে সবাইকে। অন্যায়ের সঙ্গে আপস করা যাবে না। ড. কামাল হোসেন  বলেন, এ দেশের মানুষেরা মানুষ না হলে দেশ স্বাধীন হতো না। তারা লোভী ছিলেন না বলেই মুক্তিযুদ্ধের সময় অসম্ভবকে সম্ভব করা হয়েছে। কিছু লোক লোভের শিকার হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, তরুণ সমাজ সংখ্যাগরিষ্ঠ রয়েছে, তারাই পারবে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করে সফল হতে। বাঙালি জাতির চরিত্র আছে, কিছু লোকের চরিত্র নেই মন্তব্য করে গণফোরাম সভাপতি বলেন, এরশাদ আমাকে বলছেন আপনি কি চান, আমি বলেছি আপনি লিখে দেন আমি পদত্যাগ করব। অর্থাৎ আমার কাছে লোভ ছিল না বলেই আমি বিক্রি হইনি। তাই এ কথা বলার সাহস হয়েছে। তাই দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাহসী ভূমিকা রাখতে হবে।

ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান  মনসুর বলেন, বর্তমানে একটি ভোটারবিহীন সরকার ক্ষমতায় রয়েছে। ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ছিল জঙ্গিবাদী নির্বাচন। তিনি বলেন, এই দেশটি পরিচালিত হতে হবে জনগণের মতামত নিয়ে। এখানে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে। রাজনীতির কারণেই দেশ স্বাধীন হয়েছে, এটা মনে রাখতে হবে। নাগরিকদের অধিকার নিয়ে সব সময় লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, আমি সাদাকে সাদা, কালোকে কালো বলব। নাগরিক পরিষদের আহ্বায়ক শামছুদ্দিন আহমেদ বলেন, মার্কা ব্যবসা বন্ধ না করলে দুর্নীতি বন্ধ হবে না। কয়েকটি তালিকাভুক্ত রাজনৈতিক দল, মার্কা ব্যবহার করে নমিনেশন বাণিজ্য করছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow