Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:১১
সবাইকে বাধ্যতামূলক আয়কর দিতে হবে
নিজস্ব প্রতিবেদক
সবাইকে বাধ্যতামূলক আয়কর দিতে হবে

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, দেশের উন্নয়নের স্বার্থে সবাইকে বাধ্যতামূলক আয়কর দিতে হবে। করযোগ্য আয় থাকলেই আমাদের বাধ্যতামূলক করারোপ করা উচিত। এটা হতে পারে ১০ টাকা, ২০ টাকা, ৩০ টাকা। সময় উপযোগী ন্যূনতম এই করারোপে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। আমি এ প্রস্তাব করছি, তবে বাস্তবায়িত হবে না, তাও জানি। এর পক্ষে সুশীল সমাজ থেকে শুরু করে সব নাগরিককে কথা বলতে হবে। গতকাল রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আয়োজিত ‘পে-রোল ট্যাক্স ও করনেট সম্প্রসারণ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশের কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল মাসুদ আহমেদ ও বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট (পিআরআই)-এর নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর। এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন সংস্থাটির সদস্য (কর পরিদর্শন) জিয়া উদ্দিন মাহমুদ। মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বৃহৎ করদাতা ইউনিট—এলটিইউ (আয়কর) কমিশনার আলমগীর হোসেন। সেমিনারে উন্মুক্ত আলোচনা ও প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। অর্থমন্ত্রী বলেন, যাদের কোনো আয় নেই, তারা ছাড়া দেশের প্রত্যেক নাগরিককে বাধ্যতামূলকভাবে ন্যূনতম করের আওতায় আনা উচিত। এর পরিমাণ যাই হোক না কেন, কয়েক বছর আগেও একবার এ প্রস্তাব দিয়েছিলেন। এখন আবারও দিচ্ছি। যদিও বাস্তবায়ন হবে কিনা জানি না। তবে আশা ছাড়িনি। সরকারের এখনো দুই বছর আছে। তার মতে, আয়কর দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে অনেক বেশি। সঠিক কোটিপতির সংখ্যা বের করতে পারলেও করদাতার সংখ্যা অনেক বেড়ে যাবে। যে কর দেয় তার গর্ববোধের অধিকার আছে। টিআইএন নেওয়ার মধ্যেও একটি গর্বের বিষয় আছে। সে গর্ববোধই তাকে আয়কর দিতে উৎসাহিত করতে পারে। কর দেওয়ার ক্ষেত্রে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। ১৬ কোটি মানুষের বাংলাদেশে ১৬ লাখও নয়, মাত্র ১২ লাখ মানুষ আয়কর দেয় জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, এনবিআর এ বছর ৩ লাখ করদাতা বাড়ানোর যে পদক্ষেপ নিয়েছে তা সন্তোষজনক নয়, ১২ থেকে ১৫ লাখ করদাতায় উন্নীত করা খুবই ধীরগতির। উন্নত দেশে মোট আয়করের ৩০ শতাংশ আসে বেতন-ভাতা থেকে। অথচ বাংলাদেশে এটা মাত্র ৪ শতাংশ। এ অবস্থার পরিবর্তনের ওপর জোর দিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, সরকারি কর্মচারীদের কাছ থেকে এখন সরকার কর কেটে রাখছে। বেসরকারি খাতও সচেতন হয়ে বেতন থেকে আয়কর কেটে রাখলে এ অবস্থার উন্নতি হবে। দেশে কর সংস্কৃতি তৈরি করার জন্যই এটা করা দরকার। প্রসঙ্গত, বর্তমানে ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকায় অবস্থিত করদাতার জন্য ন্যূনতম কর ৫ হাজার টাকা। অন্য সিটি এলাকার জন্য ৪ হাজার টাকা। আর এর বাইরের এলাকার জন্য ৩ হাজার টাকা। চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেটে আয়কর হিসেবে ৭১ হাজার ৯৪০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য ধরা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow