Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৩৭
রিকশাচালকের পায়ে গুলি করলেন যুবলীগ নেতা
নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর মহাখালীতে ভাড়া চাওয়ায় কবির হোসেন নামে এক রিকশাচালকের পায়ে গুলি করেন যুবলীগ নেতা ইউসুফ সরদার সোহেল ওরফে সুন্দরী সোহেল। গতকাল গুলশানের হোটেল আমারী থেকে অস্ত্রসহ সোহেলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পুলিশ বলছে, তাকে আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে। তার সহযোগী শাহ আলমকে ধরতে অভিযান চলছে। সুন্দরী সোহেল বনানী থানা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক এবং পলাতক শাহ আলমও যুবলীগ নেতা।

বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ওয়াহিদুজ্জামান জানান, রিকশাচালককে গুলির মামলায় সুন্দরী সোহেলকে তার লাইসেন্সকৃত পিস্তলসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সন্তোষজনক জবাব না পেলে আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে। এ মামলায় আরেক আসামি শাহ আলমকেও খোঁজা হচ্ছে। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে মহাখালীর আমতলী মোড়ে বনানী ২ নম্বর রোডের মাথায় রিকশাচালক কবির হোসেনের পায়ে গুলি করেন সুন্দরী সোহেল। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কবির হোসেন জানান, গুলশান থেকে দুজন যাত্রী নিয়ে তিনি বনানীর ২ নম্বর রোডের মাথায় (আমতলী মোড়) যান। ভাড়া না দিয়ে রিকশা থেকে নেমে হাঁটা শুরু করেন তারা। এ সময় ভাড়া চাইলে তারা কবিরের পায়ে গুলি করে বীরদর্পে চলে যান। পরিচিত চান মিয়া তাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করান। এ ঘটনায় গতকাল সুন্দরী সোহেল ও শাহ আলমকে আসামি করে তিনি বনানী থানায় মামলা করেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow