Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৪৭
বজ্রপাতে একদিনে নিহত ১৬ জন
প্রতিদিন ডেস্ক

দেশের ছয় জেলায় বজ্রপাতে একই পরিবারের ৩ জনসহ ১৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১৯ জন।

গতকাল এ ঘটনা ঘটে। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের মধুুপুরে বজ্রপাতে আদিবাসী একই পরিবারের ৩ জন নিহত হয়েছেন। গতকাল সকালে মধুপুর পাহাড়ি এলাকার বেরবাইদ ইউনিয়নের মাগন্তিনগর পচারচনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন নিখিল হাজং (৪৫) ও তার  দুই ছেলে জর্জ সিমসাং (১০) ও লোটন সিমসাং (৮)। বজ্রপাতে নিখিলের স্ত্রী জনতা সিমসাং আহত হয়েছেন। মধুপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শফিকুল ইসলাম জানান, সকালে নিখিল ও তার পরিবারের সদস্যরা বাইরে যাচ্ছিলেন। এ সময় তাদের ওপর বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই বাবা ও দুই ছেলে নিহত হন। আহত জনতা সিমসাংয়ের শরীরের বেশির ভাগ ঝলসে গেছে। সুনামগঞ্জ : দিরাই ও শাল্লা উপজেলায় পৃথক বজ্রপাতের ঘটনায় শিশুসহ ৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে ৭ জন। গতকাল এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, সকাল ১০টার দিকে বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রপাত শুরু হয়। এ সময় দিরাই উপজেলার মাটিয়ারপুর গ্রামের পাশের হাওরে নৌকায় থাকা জেলেদের ওপর বজ্রপাত হলে ২ জন নিহত হন। তারা হলেন মাটিয়ারপুর গ্রামের কনাই মিয়ার ছেলে শামীম আহমদ (২০) ও আবুল হাশিমের ছেলে তহুর আলম (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হন আরও ৬ জন। একই সময় উপজেলার টুক দিরাই গ্রামে বাড়ির পাশে খেলার সময় বজ্রপাতে শামরান হোসেন (১১) নামে এক শিশু নিহত হয়। একই সময় শাল্লা উপজেলার শ্রীহাইল গ্রামের বেড়ামনা হাওরে মাছ ধরার সময় বজ্রপাতে আরও তিন জেলে নিহত হয়েছেন। তারা হলেন শ্রীহাইল গ্রামের আবদুস সালামের ছেলে হৃদয় মিয়া (১৮), আক্কেল আলীর ছেলে ইমন মিয়া (২০) ও হায়দার আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (২২)। কিশোরগঞ্জ : করিমগঞ্জে বজ্রপাতে মা ও ছেলে নিহত হয়েছেন। তারা হলেন উপজেলার গুজাদিয়া ইউনিয়নের পূর্ব চর করণশি দুই আনি পাড়া গ্রামের মারুফ মিয়ার স্ত্রী ললিতা বেগম (৪০) ও ছেলে রিমন (১৩)। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তার মেয়ে রিমা (২০)। জানা গেছে, সকাল ১০টার দিকে বৃষ্টি শুরু হলে মারুফ মিয়ার টিনশেড ঘরে বজ্রপাতে ললিতা ও রিমন মারা যান। দিনাজপুর : বজ্রপাতে পার্বতীপুরে পিয়ারু মুসাহার (৬০) নামে এক বৃদ্ধ নিহত ও আহত ৬ জন আহত হয়েছেন। এ ছাড়া খানসামায় মতিচন্দ্র রায় (৩৪) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। পিয়ারু বদরগঞ্জ উপজেলার হাসিনানগরের বাসিন্দা আর মতিচন্দ্র খানসামা উপজেলার আঙ্গারপাড়া ইউনিয়নের ছাতিয়ানগর গ্রামের পণ্ডিতপাড়ার মৃত মেঘনাধচন্দ্র রায়ের ছেলে। পার্বতীপুরের পলাশবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মোফাখখারুল ইসলাম ফারুক জানান, দুপুরে বৃষ্টির মধ্যে ওই সাতজন দিনমজুর জমিতে ঘাস নিড়ানির কাজ করছিলেন। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই পিয়ারু নিহত হন। অন্যদিকে, খানসামার আঙ্গারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা আহম্মেদ শাহ্ জানান, সকালে ধান খেতে কাজ করার সময় বৃষ্টি শুরু হলে বজ্রপাতে মতিচন্দ্র রায় নিহত হন। বদরগঞ্জ (রংপুর) : বদরগঞ্জে বজ্রপাতে সন্ধ্যারানী (৪০) নামে এক গৃহবধূ নিহত ও ৪ জন আহত হয়েছেন। গতকাল দুপুরে রামনাথপুর ইউনিয়নের ট্যাকসের হাট দক্ষিণপাড়া, সর্দারপাড়া ও হাসিনানগর নামাপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, সন্ধ্যারানী ঘরের দুয়ারে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় বজ্রপাতে নিহত হন। অন্য ৩ জন মাঠে কাজ করার সময় বজ্রপাতে আহত হন। এ ছাড়া খুশবু (৩৫) বজ্রপাতে আহত হন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ: গতকাল বিকালে সদর উপজেলার সীমান্তবর্তী নারায়ণপুরে পদ্মানদীতে মাছ ধরার সময় বজ্রপাতে ২ জন নিহত হয়েছেন। এরা হলেন-নারায়ণপুর ইউনিয়নের জোহুরপুর নয়রশিয়া গ্রামের মো. ফটিকের ছেলে আব্দুর রাকিব (২৩) ও আব্দুস সামাদের ছেলে ওয়াহিদুল ইসলাম (৪৫)।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow