Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৪৮
ছয় দিন পরেই মুখোমুখি বিতর্ক
মার্কিন নির্বাচন
প্রতিদিন ডেস্ক
ছয় দিন পরেই মুখোমুখি বিতর্ক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর সাকুল্যে মাস দেড়েক বাকি। দেশটির প্রধান দুই দল ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিক নেতারা এখন পুরোদস্তুর ব্যস্ত নির্বাচনী প্রচারণায়। এর মধ্যে মাত্র আর পাঁচ দিন পরেই প্রথমবার প্রেসিডেনসিয়াল বিতর্কে অংশ নিচ্ছেন হিলারি ক্লিনটন ও ডোনাল্ড ট্রাম্প। দুই প্রার্থী জনমত জরিপে কাছাকাছি অবস্থান করায় এ বিতর্ক জমবে বলে ধারণা করছেন বিশ্লেষকেরা। এবারের এ বিতর্কে অগ্রাধিকার পাবে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা। বিশেষ করে নিউইয়র্ক, নিউ জার্সিতে বোমা হামলা ক্ষমতাসীন সরকারকে ঘায়েল করতে এটাকেই মোক্ষম অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী সোমবার নিউইয়র্কের হফস্ট্রা ইউনিভার্সিটিতে স্থানীয় সময় রাত ৯টায় তাদের মুখোমুখি এই বিতর্ক হওয়ার কথা রয়েছে।

ট্রাম্প শিবির জানিয়েছে, ভোটারদের মন জয় করতে দুটি ইস্যুতে গুরুত্ব দেবেন ট্রাম্প। তা হলো অভিবাসন ও সন্ত্রাস। নিউইয়র্কে বোমা হামলায় কেউ নিহত হননি। কিন্তু যখন ট্রাম্প ও হিলারির মধ্যে বিতর্ক হতে যাচ্ছে তার আগে এমন একটি ঘটনা সন্ত্রাস ইস্যুতে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে। ট্রাম্পের দৃষ্টিতে, সন্ত্রাসের এই নতুন ধারা সরাসরি জাতির মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করছে। এই আতঙ্ককে নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। তিনি এটা করে  দেখাতে চান যদি নভেম্বরের নির্বাচনে বিজয়ী হন। গত পরশু ফ্লোরিডায় এক সম্মেলনে তিনি বলেছেন, এই শয়তানি কর্মকাণ্ড আমরা অব্যাহত দেখতে চাই না। নিউইয়র্ক ও নিউ জার্সির ঘটনায় আফগান বংশোদ্ভূত আহমদ খান রাহামিকে আটক করার পর তিনি এ মন্তব্য করেছেন।

ওদিকে শনিবার মিনেসোটায় একটি শপিং মলে ছুরিকাঘাত করে সন্ত্রাসীরা আহত করেছে নয়জনকে। এ হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস। হিলারিকে কীভাবে ঘায়েল করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ট্রাম্প তা বোঝা  গেলেও হিলারির প্রস্তুতি সম্পর্কে এখনো স্পষ্ট ধারণা মিলছে না। তিনি এখনো ঠাণ্ডা মাথার পরিচয় দিচ্ছেন। তিনি সোমবার একটি বিমানবন্দরে সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আমি জানি কীভাবে এসব ইস্যুতে কথা বলতে হয়। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে এসব হামলাকে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও তার মিত্র এক সময়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের সন্ত্রাসবিরোধী নীতির দুর্বলতা হিসেবে আখ্যায়িত করছেন ট্রাম্প।

ম্যানহাটন হামলা নিয়ে বিতর্ক : নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে বোমা হামলার পর মার্কিন নির্বাচনের দুই প্রার্থী ইতিমধ্যেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। এ ঘটনার জন্য জাতীয় নিরাপত্তাব্যবস্থা দুর্বল বলে মন্তব্য করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন এমন হামলার জন্য ট্রাম্পের উসকানিমূলক বক্তব্যকে দায়ী করেছেন। স্থানীয় সময় শনিবার রাত ৯টায় নিউইয়র্ক ম্যানহাটনের চেলসি নামক স্থানে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ২৯ জন আহত হন। সোমবার পুলিশের সঙ্গে গুলিবিনিময়ের পর বোমা হামলার প্রধান সন্দেহভাজন আহমদ খান রাহামিকে (২৮) আটক করা হয়। নিউজার্সি থেকে আহত অবস্থায় আটকের পর রাহামির বিরুদ্ধে কয়েকটি অভিযোগ করা হয়েছে। ওই ঘটনার রেশ না কাটতেই ফ্লোরিডার ফোর্ট মায়ার্সে এক বক্তৃৃতায় রাহামিকে চিকিৎসা ও আইনি সহায়তার সুযোগ দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ট্রাম্প। এএফপি, বিবিসি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow