Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • চাটাইয়ে মুড়িয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান!
  • কেরানীগঞ্জে বাচ্চু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, ৭ জনের যাবজ্জীবন
  • ৩ মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে খালেদার আবেদন
  • হালদা নদীর পাড়ের অবৈধ স্থাপনা ভাঙার নির্দেশ
  • আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা
  • কাদেরের বক্তব্যে একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী
  • কলারোয়া সীমান্তে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
  • বিএনপি নির্বাচনে না এলেও গণতন্ত্র অব্যাহত থাকবে: কাদের
প্রকাশ : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৪৯
মার্কিন নির্বাচনের ফল সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে না
কূটনৈতিক প্রতিবেদক
মার্কিন নির্বাচনের ফল সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে না
নিশা দেশাই বিসওয়াল

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল বলেছেন, আগামী ৮ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে যারাই ক্ষমতায় আসুক না কেন, বৈদেশিক নীতির পরিবর্তন হবে না। বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কেও তার কোনো প্রভাব পড়বে না। বর্তমান প্রশাসনের সঙ্গে বাংলাদেশের যে সম্পর্ক, নতুন প্রশাসনের সঙ্গেও সেই সম্পর্ক অটুট থাকবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিশ্বের বড় বড় বিনিয়োগকারী কোম্পানির শীর্ষ কর্তাদের উপস্থিতিতে নিউইয়র্কে এক সভায় নিশা দেশাই গতকাল এসব কথা বলেন।

ওয়ালডর্ফ অ্যাসটোরিয়া হোটেলে বিজনেস কাউন্সিল অব ইন্টারন্যাশনাল আন্ডারস্ট্যান্ডিং (বিসিআইইউ)-এর উদ্যোগে আয়োজিত মধ্যাহ্ন ভোজসভায় নিশা দেশাই বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি বাংলাদেশ সফর করে দেশটির উন্নয়ন এবং সামগ্রিক পরিস্থিতি দেখে অভিভূত হয়েছেন। তার সফর সম্পর্ককে এগিয়ে নিতে ভূমিকা রাখবে। তবে বাংলাদেশে সাম্প্রতিক জঙ্গি হামলার বিষয়টি ভাবিয়ে তুলছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলোকে। তাই সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

এ সভাতেই বাংলাদেশি পণ্যের শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের আচরণের সমালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, নিউজিল্যান্ড, চীন, জাপান, ভারত, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ ৫২টি দেশে বাংলাদেশের পণ্য শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেও যুক্তরাষ্ট্র এ বিষয়ে ন্যায্য আচরণ করছে না বলে অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী। কারখানার কর্মপরিবেশ নিয়ে আপত্তি তুলে ২০১৩ সালে বাংলাদেশের পণ্যে অগ্রাধিকারমূলক বাজার সুবিধা (জিএসপি) স্থগিত করে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে জেনারেলাইজড সিস্টেম অব প্রিফারেন্সের (জিএসপি) আওতায় বাংলাদেশ ৫ হাজার ধরনের পণ্য যুক্তরাষ্ট্রে শুল্কমুক্ত সুবিধায় রপ্তানি করতে পারত, যদিও এর মধ্যে দেশের প্রধান রপ্তানি পণ্য তৈরি পোশাক ছিল না। সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান, রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, জাতিসংঘে নিযুক্ত স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন অংশ নেন। উপস্থিত ছিলেন আমেরিকান টাওয়ার করপোরেশন, ওয়ালমার্ট, মেটলাইফ, বোয়িং, শেভরন করপোরেশন, জিই, কোকাকোলাসহ বিভিন্ন কোম্পানি থেকে ব্যবসায়ী নেতারা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow