Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:১৭
চাঁদাবাজদের তালিকা সরকারের হাতে
নিজস্ব প্রতিবেদক
চাঁদাবাজদের তালিকা সরকারের হাতে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানিয়েছেন, মহাসড়ক ও ফেরিঘাটে চাঁদাবাজির সঙ্গে জড়িতদের তালিকা সরকারের হাতে রয়েছে। যারা চাঁদাবাজি করে তাদের চিহ্নিত করে গোয়েন্দা সংস্থা একটি তালিকা করেছে। এদের সবার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গতকাল সচিবালয়ে মহাসড়ক ও ফেরিঘাটের নিরাপত্তাবিষয়ক এক বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, মহাসড়ক ও ফেরিঘাটে এরই মধ্যে বেশ কিছু সিসি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে। ক্যামেরার সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে, যাতে চাঁদাবাজির চিত্র এবং জড়িতদের সহজে ধরা যায়। তিনি বলেন, মহাসড়ক ও ফেরিঘাটের চাঁদাবাজদের পাশাপাশি বিভিন্ন স্থানে নির্ধারিত টোলের বেশি অর্থ আদায়কারীদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, অনেক দিন যাবৎ দেশের ফেরিঘাট ও হাইওয়েতে চাঁদাবাজির অভিযোগ আমরা পাচ্ছিলাম। সেই পরিপ্রেক্ষিতে দেশের গোয়েন্দা সংস্থাকে চাঁদাবাজদের তালিকা তৈরির দায়িত্ব দেওয়া হয়। গোয়েন্দা সংস্থার সেই তালিকা আমাদের হাতে এসেছে। আমরা প্রথমে এসব চাঁদাবাজদের সতর্ক হওয়ার সুযোগ দেব। না মানলে আজ থেকেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চাঁদাবাজদের চিহ্নিত করার পরও কেন তাদের বিরদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে সতর্ক করা হচ্ছে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সরকার দুর্বল নয়। যাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকবে, তাদের বিরুদ্ধে ঠিকই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেন, সড়ক পথ জনগণের জন্য সহজ ও আরামদায়ক করতেই সরকার এই কঠোর পদক্ষেপ নিতে পিছপা হবে না। তিনি আরও বলেন, চাঁদাবাজরা চিহ্নিত। তাদের পার পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তারা যে দলেরই হোক, যত শক্তিশালীই হোক- তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় উপস্থিত ছিলেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোজাম্মেল হক খান, পুলিশ মহাপরিদর্শক শহীদুল হক, র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, রাজবাড়ীর সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী, ফেরিঘাট সংশ্লিষ্ট জেলার ডিসি ও পুলিশ সুপার এবং পরিবহন মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠনের নেতারা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow