Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৪৬
ফের চটেছেন ট্রাম্প
প্রতিদিন ডেস্ক
ফের চটেছেন ট্রাম্প

তির্যক মন্তব্য, ব্যক্তিগত সমালোচনা এবং বাগাড়ম্বরের পথ থেকে সরে আসছেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। সব কিছুকে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করা ট্রাম্প গত সোমবার প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাটিক দলের হিলারি ক্লিনটনের সঙ্গে প্রথম মুখোমুখি বিতর্কে প্রচণ্ডভাবে হেরে যান।

কিন্তু এই পরাজয়কে মেনে নিতে নারাজ ট্রাম্প। বরং ওই বিতর্কের পর ট্রাম্প তার প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারি, বিতর্কের সঞ্চালক লেস্টার হল্ট এবং গণমাধ্যমের তীব্র সমালোচনা করেছেন। বিতর্কের পরদিন মঙ্গলবার ফ্লোরিডায় এক নির্বাচনী সমাবেশে সবাইকে নিয়ে সমালোচনা করেন। হিলারিকে অনেকটা তাচ্ছিল্য করে ট্রাম্প বলেন, অনেক বিষয়ে হিলারির অভিজ্ঞতা বেশি, তবে সেই অভিজ্ঞতাগুলো খুবই বাজে। বাণিজ্য বিষয়ে হিলারির অবস্থানেরও তিনি তীব্র সমালোচনা করেন। নাফটা চুক্তির কথা উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেন, ‘এমন বাজে চুক্তি মার্কিন ইতিহাসে কখনো হয়নি। ’ হিলারির পররাষ্ট্রনীতি যুক্তরাষ্ট্রের জন্য ক্ষতিকর বলেও মন্তব্য করেন ট্রাম্প। আর হিলারির রাজনীতিক প্রজ্ঞা সম্পর্কে বলেন, তিনি একজন ‘অসৎ রাজনীতিক’। বির্তক অনুষ্ঠানের সঞ্চালক হল্টের বিরুদ্ধে আগ থেকেই বিরাগভাজন ট্রাম্প। মঙ্গলবার হলের সমালোচনা করে তাকে ‘শিষ্টাচারের সর্দার’ বলে খোঁচা দেন। বিতর্কের সময় ট্রাম্পের অঙ্গভঙ্গিতে আপত্তি জানিয়েছিলেন হল্ট। ট্রাম্প ফ্লোরিডার সমাবেশে দাবি করেন, ওইরকম অঙ্গভঙ্গি করাটা সংবিধানসম্মত। ফ্লোরিডায় সংবাদমাধ্যমের সমালোচনা করতে ছাড়েননি ট্রাম্প। তার বক্তব্যকে সংবাদমাধ্যম ভুল করে উপস্থাপন করেছে বলেও দাবি করেন। ইরাক যুদ্ধে তার মতামতের পক্ষে বলেন তিনি ওই যুদ্ধের পক্ষাবলম্বন করেননি। কিন্তু কিছু পত্রিকা এই মতামতের মিথ্যাচার করেছে। বিতর্কের পর জরিপে হিলারি জয়ী হয়েছেন বলে সংবাদমাধ্যমে যে ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করে ট্রাম্প বলেন, ‘দুর্নীতিগ্রস্ত করপোরেট সংবাদমাধ্যম’ হিলারির পক্ষ নিয়েছে। মূলধারার সংবাদমাধ্যমগুলো তার পক্ষে কোনো কথা না বলে একতরফাভাবে হিলারির সাফাই গেয়েছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। দ্য গার্ডিয়ান।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow