Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৪
চীনের সঙ্গে সড়ক ও রেল যোগাযোগ দরকার
নিজস্ব প্রতিবেদক
চীনের সঙ্গে সড়ক ও রেল যোগাযোগ দরকার

জনপ্রশাসনমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, ‘চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের সরাসরি সড়ক ও রেল যোগাযোগ হওয়া দরকার। চীনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং আমাদের দেশে সফরে আসছেন।

তার সফর হবে ঐতিহাসিক। তার সফরকালে বিষয়টি গুরুত্ব পাবে। এটি দুই দেশের জন্যই আলোচিত ঘটনা। ঐতিহাসিক প্রয়োজনেই আত্মিক সম্পর্ক বৃদ্ধির   মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে সম্প্রীতি বৃদ্ধি পাবে। ’ গতকাল রাজধানীর বিএমএ মিলনায়তনে চীন গণতন্ত্র বিপ্লবের ৬৭তম বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘চীন ও ভারতবর্ষের সভ্যতার মতোই তাদের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক পুরনো। হাজার বছর আগে জ্ঞানতাপস অতীশ দীপঙ্কর পায়ে হেঁটে চীন পৌঁছেছিলেন এ অঞ্চলের সঙ্গে চীনের সম্পর্ক বৃদ্ধির জন্য। দুই দেশের উন্নয়নের কথা ভেবে সে সম্পর্ক আজও অব্যাহত আছে। ’ চীন ও বাংলাদেশের মানসচরিত্র সম্পর্কে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘কৃষ্টি, কালচার, আধুনিকতা ও ধর্মীয় চেতনা নিয়ে এ দেশের মানুষ যেভাবে ভাবে, চর্চা করে, চীনেও তা-ই। তাদের নৈতিক আদর্শের সঙ্গেও আমাদের মিল আছে। সুতরাং উভয় দেশের মেলবন্ধন যতটুকু না রাজনৈতিক, এর চেয়ে বেশি আত্মিক। ’ এ সময় সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়াকে রসিকতার ছলে তিনি বলেন, ‘একসময় দাদা একা চীনা মানুষ ছিলেন। এখন আমরা অনেকেই আছি। ’ বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নিযুক্ত চীনা দূতাবাসের পলিটিক্যাল কাউন্সিলর ইয়াং জাও হুই বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশ সরকারের উন্নয়নের সঙ্গে নানাভাবে সম্পৃক্ত আছি এবং থাকব। আমরা চাই দুই দেশের মধ্যে সুসম্পর্কের মাধ্যমে উন্নত চিন্তার বিকাশ ঘটবে। ’ দিলীপ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, সাম্যবাদী দলের পলিটব্যুরোর সদস্য লুত্ফর রহমান প্রমুখ।

up-arrow