Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:০৩
হিলারির তহবিল সংগ্রহে লরা ও বারবারা বুশ
প্রতিদিন ডেস্ক
হিলারির তহবিল সংগ্রহে লরা ও বারবারা বুশ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর মাস খানেক বাকি। নির্বাচনের আগে জনপ্রিয়তার পাল্লা সময় সময়ই ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী হিলারির ভারী ছিল রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে।

কিন্তু মাঝে কিছু ট্রাম্প জনপ্রিয়তায় প্রায় হিলারিকে ছুঁয়ে ফেলেন। গত সপ্তাহে দুই প্রার্থী মুখোমুখি বিতর্কে বসেন। তাতে অনেকটা গো-হারা হেরে যান ট্রাম্প। ট্রাম্প ইতিমধ্যে শিরোনাম হয়েছেন তার নানা রকমের বেফাঁস মন্তব্যের জন্য। আর এ কারণে দেশটির অনেক প্রভাবশালী পত্রপত্রিকার যারা ১০০ বছরের বেশি সময় ধরে রিপাবলিকান দলের প্রার্থীকে সমর্থন দিয়ে আসছেন। এবার তারাও সেই ঐতিহ্য ভেঙে ডেমোক্র্যাট প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছে। শুধু তাই নয় রিপাবলিকান দলের শীর্ষ পর্যায়ের অনেক নেতারও সমর্থন পেয়েছেন হিলারি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন রিপাবলিকান দলের সাবেক দুই বারের মার্কিন প্রেসিডেন্ট সিনিয়র বুশ বা জর্জ এইচ ডব্লিউ বুশ। এবার সেই রসায়নে আরও নতুন মাত্রা যোগ করেছেন তার পুত্রবধূ ও সাবেক ফার্স্ট লেডি লরা বুশ (জর্জ ডব্লিউ বুশের স্ত্রী) ও নাতনি বারবারা বুশ। তাদের দেখা গেছে হিলারি ক্লিনটনের শিবিরে। এর মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সুখ্যাত পরিবার  ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে বলেই প্রতীয়মান হচ্ছে।

মার্কিন প্রভাবশালী গণমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, শনিবার রাতে প্যারিসে হিলারি ক্লিনটনের তহবিল সংগ্রহের জন্য একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই দেখা গেছে সাবেক ফার্স্টলেডি লরা বুশ ও তার মেয়ে বারবারা বুশকে। সেখানে তহবিল সংগ্রহের এ আয়োজন করেন হিলারি ক্লিনটনের দীর্ঘ সময়ের কর্মী হুমা আবেদিন। ওই অনুষ্ঠানে ভোগ ম্যাগাজিনের প্রধান সম্পাদক আনা উইনট্যুরও উপস্থিত ছিলেন। সেখানে এ দুই স্বনামধন্য ব্যক্তিত্বের সঙ্গে ছবি তোলেন বারবারা বুশ। এরপর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এমন অনেকে ওই ছবি পোস্ট করেন। এর মধ্যে রয়েছেন অনলাইন ফ্যাশন বিষয়ক ওয়েবসাইট মোডা অপারেনডির সহ-প্রতিষ্ঠাতা লঁরা সান্তো ডোমিঙ্গো। এ বিষয়ে তিনি একটি হ্যাশট্যাগ চালু করেছেন। এর নাম  দেওয়া হয়েছে ‘#আই অ্যাম উইথ হার’। এ বিষয়ে সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের মুখপাত্রের কাছে জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি বলে জানিয়েছে সিএনএন। হিলারির প্রচারণা দলেও কেউ এ বিষয়ে তাত্ক্ষণিক মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। রিপাবলিকান দলের মনোনীত প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ত্যাগ করে ডেমোক্র্যাট দলের প্রার্থীর পক্ষে অবস্থান নেওয়া বুশ পরিবারের নতুন এ অধ্যায়ে সবাই চমকিত। গত মাসে সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ এইচ ডব্লিউ বুশ মেরিল্যান্ডের সাবেক লেফটেন্যান্ট গভর্নর ক্যাথলিন কেনেডি টাউনসেন্ডকে বলেছেন, তিনি ভোট  দেবেন হিলারিকে। তবে তার ছেলে ও সাবেক  প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ এখনো ট্রাম্পকে সমর্থন দেননি।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow