Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১০
আগাম ভোটে এগিয়ে হিলারি
প্রতিদিন ডেস্ক
আগাম ভোটে এগিয়ে হিলারি

যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর বাকি ২৬ দিন। এর মধ্যে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষ ‘আগাম ভোট’ দিয়েছেন।

কেন্দ্রফেরত ভোটারদের মতামতের ভিত্তিতে একাধিক জরিপ সংস্থা জানিয়েছে, আগাম ভোটে এগিয়ে আছেন ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন।

‘আরলি ভোটিং’ নামে পরিচিত এই আগাম ভোটের ব্যবস্থা গত চারটি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। ২০০৮ ও ২০১২ সালে আগাম ভোট দেওয়া লোকের সংখ্যা ছিল মোট ভোটারের ৩০ শতাংশের বেশি। বারাক ওবামার জয়ের পেছনে এই ভোটারদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চলতি বছরের নির্বাচনে সম্ভবত ৪০ শতাংশের বেশি মানুষ আগাম ভোটের সুযোগ নেবেন।

নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, আগাম ভোটের বর্তমান ধারা যদি বজায় থাকে, তাহলে আগামী ৮ নভেম্বর ভোট গ্রহণের আগেই সম্ভবত হিলারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হবেন। যুক্তরাষ্ট্রের অধিকাংশ অঙ্গরাজ্যেই নাগরিকরা কারণ দর্শানোর ভিত্তিতে কিংবা কোনো কারণ ছাড়াই আগাম ভোটে অংশ নিতে পারেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ৫০ দিন আগে এই আগাম ভোট নেওয়া হয়ে থাকে। যেমন মিনেসোটায় ২৩ সেপ্টেম্বর আগাম ভোট নেওয়া হয়েছে। আগাম ভোটব্যবস্থার কারণেই রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে এ মুহূর্তে নির্বাচন থেকে হটানো কার্যত অসম্ভব হয়ে পড়েছে। যৌন কেলেঙ্কারির জেরে ট্রাম্প প্রবল চাপের মুখে আছেন। এ বিবেচনা থেকে হিলারি ও তার দল নতুন ভোটার তালিকাভুক্তি এবং আগাম ভোট দেওয়ার ওপর বিশেষ জোর দিচ্ছে। ডেমোক্র্যাটরা বিশেষভাবে মনোযোগ দিচ্ছেন ফ্লোরিডা, আইওয়া, ওহাইও এবং নেভাদার ওপর। ‘ব্যাটল গ্রাউন্ড স্টেট’ নামে পরিচিত এই অঙ্গরাজ্যগুলোর নির্বাচনী ফলাফলেই নির্ধারিত হবে এবারের প্রেসিডেন্টের ভাগ্য।

ট্রাম্পের যৌন কেলেঙ্কারি ফাঁস : নারীদের নিয়ে অশোভন মন্তব্য করে এরই মধ্যে তোপের মুখে আছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার তার বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তুলেছেন দুই নারী। ঘটনা দুটি অনেক আগের হলেও সম্প্রতি ট্রাম্পের ওই মন্তব্যের পর এবার মুখ খুললেন তারা। মার্কিন সংবাদপত্র নিউইয়র্ক টাইমসের বরাত দিয়ে গতকাল এ খবর জানিয়েছে বিবিসি। একজন নারী অভিযোগ করেন, ৩০ বছর আগে বিমানে করে যাওয়ার সময় একই ফ্লাইটে তার পাশের আসনে বসা ছিলেন ট্রাম্প। এ সময় নিউইয়র্কের বিতর্কিত ব্যবসায়ী নাকি তার শরীর অশোভনভাবে স্পর্শ করেছিলেন। তার ভাষায়, অক্টোপাসের মতো জাপটে ধরে যৌন নিপীড়ন চালানো হয়। অপর নারীর অভিযোগ, ২০০৫ সালে ‘ট্রাম্প টাওয়ারে’ ইচ্ছার বিরুদ্ধে ওই নারীর মুখে চুম্বন করেছিলেন ট্রাম্প। অবশ্য ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তোলা যৌন হয়রানির অভিযোগ নাকচ করে ওই প্রতিবেদনকে ‘কাল্পনিক’ ও ‘ভিত্তিহীন’ বলে দাবি করেছে তার প্রচারণার কাজে নিযুক্ত দল।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow