Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৩৫
যুক্তরাষ্ট্রে বোমা হামলায় মুসলিম জনপদ উড়িয়ে দেওয়ার চক্রান্ত বানচাল
প্রতিদিন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) গাড়িবোমা হামলা চালিয়ে ক্যানসাস অঙ্গরাজ্যের একটি মুসলিম জনপদ উড়িয়ে দেওয়ার চক্রান্ত বানচাল করে দিয়েছে। গত ১৪ অক্টোবর এই চক্রান্তের সঙ্গে যুক্ত তিন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতারের মধ্যদিয়ে এ হামলা পরিকল্পনা বানচাল করা হয়।

খবর : নিউইয়র্ক থেকে এনআরবি নিউজের।

গ্রেফতারকৃত তিন সন্ত্রাসী হলেন কার্টিস এলেন (৪৯), গ্যাভিন রিট (৪৯) এবং প্যাট্রিক স্টিন (৪৭)। তারা ধর্মীয় বিদ্বেষে গাড়িভর্তি বিস্ফোরক নিয়ে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা ডিভিশন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছিল। এরা মুসলমানদের তেলাপোকার মতো কীট বলে মনে করে এবং এ কারণে ক্যানসাস গার্ডেন সিটিতে অবস্থিত বিরাট একটি অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্স ধ্বংস করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। এ বিষয়ে ফেডারেল কোর্টে মামলা হয়েছে। কোর্টের ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি টম বিল আদালতকে জানিয়েছে, ওই অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সটিতে ১২০ মুসলিম পরিবার বসবাস করছেন। তারা সবাই সোমালীয় মুসলমান এবং নিকটস্থ ‘টাইসন ফুড’ পশু-খামারে মাংস প্রক্রিয়াজাতকরণের কাজ করেন। ওই ভবনে একটি মসজিদও রয়েছে। আরও জানা গেছে, ওই গার্ডেন সিটির আশপাশে বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি ও পাকিস্তানিও বসবাস করছেন। খবরে বলা হয়, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘ আট মাস ধরে পরিকল্পনা করছিল। এরা হামলার জন্য গাড়িবোমা তৈরি করেছিল। এর জন্য মালামাল ক্রয়ের সময়ই এফবিআইয়ের সন্দেহ হয়। তারপর থেকে তারা এদের প্রতি নজর রাখছিল। একপর্যায়ে সন্ত্রাস দমন বিষয়ক টাস্কফোর্স এবং ছদ্মবেশী গোয়েন্দারা সক্রিয় হয়। এদিকে সন্ত্রাসী হামলা পরিকল্পনা বানচাল করে দেওয়ায় দ্য কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশন্সের (কেয়ার) নির্বাহী পরিচালন নিহাদ আওয়াদ এক বিবৃতিতে এফবিআইকে ধন্যবাদ জানিয়ে গভীর সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘আমেরিকান মুসলমানদের ওপর এবং মসজিদে নাশকতামূলক হামলার এ ঘটনা নস্যাতের মধ্যদিয়ে প্রকৃত অর্থে মুসলিম-আমেরিকানদের নিরাপত্তায় প্রশাসন যে আন্তরিক, সেটাই স্পষ্ট হয়েছে। ’ তিনি আরও উল্লেখ করেন, মিশিগান এবং নিউজার্সির মসজিদেও একই ধরনের সন্ত্রাসী হামলার হুমকি রয়েছে। তাই জাতীয় পর্যায়ের রাজনীতিক, বিশেষ করে আসন্ন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারীদেরকে মুসলিম বিদ্বেষমূলক প্রচারণা থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

up-arrow