Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১০
শিগগিরই আসছে বড় ঝড়
নিজস্ব প্রতিবেদক
শিগগিরই আসছে বড় ঝড়

সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ড. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, বর্তমানে শিক্ষিত তরুণ প্রজন্ম দেশের বিদ্যমান রাজনৈতিক সংস্কৃতি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। তবে শিগগিরই বড় ধরনের একটি পরিবর্তনের ঝড়ের মুখে পড়তে পারে দেশের রাজনীতি।

তরুণরাই রাজনীতিতে এই পরিবর্তন নিয়ে আসবে। এটাকে ঠেকানো যাবে না। গতকাল দুপুরে রাজধানীর ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে ভাষা মতিনের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী ও চাষী নজরুল ইসলামের ৭৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গণসংস্কৃতি দলের এক স্মরণসভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, নিজেদের স্বার্থেই প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে আমাদের সুসম্পর্ক বজায় রাখতে হবে। এ ক্ষেত্রে কে সন্ত্রাসী বা কে কার বিরোধী সেটা আমাদের বিবেচ্য বিষয় নয়। দেশের প্রয়োজনে এসব ক্ষেত্রে আমাদের স্বার্থপর হতে হবে। আয়োজক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস আল মামুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ ছাড়াও এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মর্তুজা, অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আবদুল মালেক, বিএনপি নেতা ডা. দেওয়ান  মো. সালাউদ্দিন বাবু, বাংলাদেশ ন্যাপের গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অধ্যাপক বি চৌধুরী বলেন, আমরা এ দেশে বসে প্রতিবেশী বন্ধুদের সব টিভি চ্যানেল দেখি, কিন্তু তারা আমাদের কোনো টিভি চ্যানেল দেখার সুযোগ পায় না। চাষী নজরুল ইসলাম বেঁচে থাকতে দেশীয় সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করেছিলেন। তিনি বলেন, রাষ্ট্রভাষা বাংলার জন্য ভাষা মতিন যে অবদান রেখেছেন, যারা তা অস্বীকার করেন তারা তরুণ প্রজন্মের কাছে ঘৃণিত হয়ে থাকবেন। সংকীর্ণতার কারণে আমরা ভাষা মতিনকে যথাযথ মর্যাদা দিতে পারিনি। ভবিষ্যতে গুণীজনদের যদি মূল্যায়ন করতে না পারি তাহলে আমাদের করুণ পরিণতি হবে। বি চৌধুরী বলেন, দেশের জন্য যারা জীবন উৎসর্গ করেছেন, এ ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে আমরা তাদের প্রতি যত বেশি শ্রদ্ধা জানাতে পারব, স্মরণ করতে পারব, তত বেশি এই জাতি আলোকিত হবে, সমৃদ্ধ হবে। অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা এমাজউদ্দীন আহমদ বলেন, ভাষা মতিন ছিলেন রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের অন্যতম সিপাহশালার। তিনি যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ও অবদান রেখেছেন তা কোনোভাবেই অস্বীকার করা যায় না। মহান মুক্তিযুদ্ধে চাষী নজরুল ইসলামের অবদানও অপরিসীম।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow