Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১২
ফেসবুক স্ট্যাটাসে তোলপাড়
নিজস্ব প্রতিবেদক
ফেসবুক স্ট্যাটাসে তোলপাড়

বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক তাজউদ্দীন আহমদের একমাত্র ছেলে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজের এক ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে তোলপাড়। ১৪ ও ১৫ অক্টোবর সোহেল তাজের ফেসবুক আইডিতে পৃথক দুটি স্ট্যাটাস ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষের মধ্যে নতুন আলোচনার সূত্রপাত ঘটিয়েছে।

সোহেল তাজ রাজনীতিতে ফিরছেন কিংবা দেশে এসে আওয়ামী লীগের সক্রিয় কর্মী হিসেবে কাজ করবেন শুরু হয়েছে এমন আলোচনা। তবে এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সোহেল তাজ বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘না, আমি শুধু সামাজিক কাজকর্ম করব। তা শুধু দেশের ও দেশের মানুষের কল্যাণে। তবে আমি সব সময়ই বাংলাদেশকে ভালোবাসি। তাই বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের জন্য কিছু একটা করতে চাই। ’ ইংরেজিতে লেখা সোহেল তাজের ওই ফেসবুক স্ট্যাটাসের অর্থ হলো, ‘আমি সম্প্রতি বাংলাদেশে প্রচুর সময় দিচ্ছি। এতে আমি গভীরভাবে অনুধাবন করেছি এবং আকাঙ্ক্ষা তীব্র হয়েছে যে, এ দেশের লাখো মানুষের জন্য অর্থবহ কিছু করি। এমন একটি জাতি, যারা সব মানুষের জন্য সুযোগ সৃষ্টি, সম-অধিকার ও গণতন্ত্র নিশ্চিত করবে— এ আকাঙ্ক্ষা নিয়ে দীর্ঘ সংগ্রামের মধ্য দিয়ে এ দেশের জন্ম। এ স্বপ্ন পূরণের জন্য আমাদের লাখো জীবন উৎসর্গ হয়েছে। এই বীরত্বপূর্ণ আত্মত্যাগের মধ্য দিয়ে পূরণ হয়েছে আমাদের স্বাধীন দেশের স্বপ্ন। আপনারা জানেন, আমি রাজনীতির মধ্য দিয়ে অবদান রাখার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি। ১৯৯৭ সাল থেকে শুরু করে ২০১২ পর্যন্ত আমি চেষ্টা করেছি। আমি দুইবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। অনেক সমাজকল্যাণমূলক কাজের সঙ্গেও যুক্ত ছিলাম আমি। যেমন আমি চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে সড়ক ও পরিবহনের নিরাপত্তা বিষয়ে প্রচারণা চালিয়ে মানুষের জীবন বাঁচানোর চেষ্টা করেছি। তবে যেসব কাজে যুক্ত ছিলাম সেগুলোর কোনোটিই সাধারণ মানুষের সরাসরি উপকারে এসে তাদের সন্তুষ্ট করতে পারেনি। এ কারণে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সাধারণ মানুষের কণ্ঠস্বর হয়ে তাদের কল্যাণে আমি আমার সময় ও শক্তি উৎসর্গ করব। ’ বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের দেখা পরামর্শগুলো নিজে পড়বেন জানিয়ে সোহেল তাজ লেখেন, ‘আমি আপনাদের কাছে পরামর্শ চাইছি। আপনাদের যে কোনো গঠনমূলক পরামর্শ ও পরিকল্পনা সাদরে গ্রহণ করব। ধন্যবাদ। ’ সোহেল তাজের ফেসবুকের ওই স্ট্যাটাসে বিপুলসংখ্যক ফেসবুক ব্যবহারকারী সাড়া দিয়েছেন। গতকাল বিকাল পর্যন্ত লাইক পড়েছে সোয়া পাঁচ হাজারের মতো। আর মন্তব্য সহস্রাধিক। এতে অনেকেই সোহেল তাজকে দলীয় রাজনীতিতে ফিরে আসার অনুরোধ করেন। এক প্রশ্নের জবাবে সোহেল তাজ লেখেন, তিনি এরই মধ্যে গাজীপুরের কাপাসিয়ায় একটি অনুষ্ঠান করেছেন, যার ভিডিও শিগগিরই ইউটিউবে আপলোড করার ইচ্ছা রয়েছে তার। পরদিন তার লেখায় সাড়া দেওয়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন সোহেল তাজ। সেখানে তিনি লেখেন, ‘সবাইকে অনেক ধন্যবাদ মূল্যবান মন্তব্য ও পরামর্শের জন্য। আমি আপনাদের মন্তব্যগুলো মনোযোগের সঙ্গে পড়েছি। পাশাপাশি বিপুলসংখ্যক মেসেজ পেয়েছি, যার জবাব পরবর্তী সময়ে দেওয়ার চেষ্টা করব। ’ ঘনিষ্ঠজনরা জানান, বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে অবস্থান করছেন সোহেল তাজ। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পর সোহেল তাজ স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow