Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৩
প্রথম টেস্ট শুরু আজ
কঠিন মিশনে টাইগাররা
মেজবাহ্-উল-হক, চট্টগ্রাম থেকে

চট্টগ্রামে আজ বাংলাদেশ-ইংল্যান্ডের প্রথম টেস্ট শুরু। ক্রিকেটারদের ঐচ্ছিক অনুশীলন ছিল গতকাল। তাই মাঠেই আসেননি দলের দুই পেসার শফিউল ইসলাম ও কামরুল ইসলাম রাব্বি। পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ রোদে ঘুরে ঘুরে দেখলেন মুশফিকদের ব্যাটিং অনুশীলন। একে একে দলে থাকা সব ব্যাটসম্যানই নেটে ব্যাটিং করলেন। গতকাল জহুর আহমেদ চৌধুরী  স্টেডিয়ামে প্রাকটিস দেখে অনুমান করা কঠিন ছিল না যে টেস্টে টাইগারদের পরিকল্পনা ‘ব্যাটিং’কেন্দ্রিক! ব্যাটিং দিয়েই চট্টগ্রাম টেস্টে ইংল্যান্ডকে আটকে দিতে চায় বাংলাদেশ। অবশ্য সে ক্ষেত্রে ভাগ্যের ওপরও খানিকটা ভরসা করতে হবে। কেননা ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচটির মতো ‘টস’ টেস্টেও পালন করতে পারে ত্রাতার ভূমিকা। অধিনায়ক মুশফিকের মতে, এ উইকেটে আগে যারা ব্যাটিং করবে, তারা সহজেই প্রতিপক্ষকে চেপে ধরতে পারবে। তাই টস জয়টা জরুরি। ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুকও টস ভাগ্যের কথাই বললেন জোর দিয়ে। ২০১৩ সালে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ড্রেনেজ পদ্ধতি আধুনিক করার পর যে চারটি টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে, সবই হয়েছে তিন নম্বর পিচে। হার ম্যাচে হারতে হয়নি বাংলাদেশকে।

নিউজিল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ড্র এবং জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে জয়। এ সাফল্যে বড় অবদান ব্যাটসম্যানদের। তাই ব্যাটসম্যানদের নিয়েই মুশফিকদের যত পরিকল্পনা। এর আগে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলা আট টেস্টের সবকটিতে হেরেছে বাংলাদেশ। তিন টেস্টে আবার ইনিংস ব্যবধানে পরাজয়ের লজ্জাও আছে। তা ছাড়া এই ইংল্যান্ড দল টেস্টে আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেশি ভয়ঙ্কর। অন্যদিকে বাংলাদেশ টেস্ট খেলতে নামছে দীর্ঘ ১৫ মাস পর। তাই আপাতত টাইগারদের ভাবনা সফরকারীদের আটকে দেওয়া। মুশফিকের কথা, ‘টেস্টে গুরুত্বপূর্ণ হলো একটা দল সেশন বাই সেশন কতটা ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলতে পারে। সেটাই আমাদের মূল লক্ষ্য। ’ টাইগারদের সবচেয়ে বড় ভয় ইংলিশ দলপতি অ্যালিস্টার কুককে। বাংলাদেশের মাটিতে কুকের গড় ১১৪। দুই ম্যাচে দুই সেঞ্চুরিসহ করেছেন ৩৪২ রান। কুককে দ্রুত আউট করার পরিকল্পনাও করছে বাংলাদেশ। আর ইংলিশ দলপতিও বাংলাদেশকে নিয়ে সতর্ক, ‘বাংলাদেশ গত তিন-চার বছরে অনেক উন্নতি করেছে। তাদের বেশকিছু প্রতিভাবান ক্রিকেটার আছে। টেস্টে আমরা ছন্দে থাকলেও কন্ডিশন আমাদের পক্ষে নয়। আমার মনে হচ্ছে ভালো লড়াই হবে। ’

up-arrow